ডেস্ক রিপোর্টারঃ আর্ত চিত্‍কার, যন্ত্রণায় ছটফটানি, কান্নায় ভেঙে পড়া, এই সমস্ত কিছুই চলেছে। কিন্তু এসব কানে যায়নি মহিলার স্বামীর। সে নিজের নারকীয় খেয়ালে স্ত্রীয়ের গোপনাঙ্গে ঢুকিয়ে গিয়েছে বাইকের হ্যান্ডেল। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের। এদিকে মধ্যপ্রদেশের চন্দননগর পুলিশ স্টেশনে এমন ঘটনা ঘটবার পরই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে যায়।  ওই ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।


জানা গেছে, গোপনাঙ্গে বাইকের হ্যান্ডেল ঢুকিয়ে নারকীয় অত্যাচার চালিয়ে মহিলার শরীরের একাধিক অঙ্গ কার্যত নষ্ট করে দিয়েছে স্বামী। আর এই পাশবিক অত্যাচারের ঘটনা প্রকাশ্যে আসবার পরই ওই স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনা একদিনের নয়, ঘটনাটি ঘটেছিল ২ বছর আগে। ওই মহিলার ছয় সন্তানের মা।

লোকলজ্জার ভয়ে একথা কাউকে জানাতে পারেননি ওই মহিলা। সেই ২টি বছর ধরে ভোগ করে গিয়েছেন নরক যন্ত্রণা। শেষে প্রচন্ড অসুস্থ হয়ে পরেন ওই মহিলা। তখন যন্ত্রণায় ছটপট করে গতকাল চিকিৎসকের কাছে যেতেই উঠে আসে এই মর্মান্তিক ঘটনা। পরে তাঁর শরীরে অস্ত্রোপচার করে ছয় ইঞ্চির হ্যান্ডেল থাকা প্লাস্টিকটি বের করা হয়।