কে? অশান্ত অভিশপ্ত ছেলে! পুরোহিতের আশীর্বাদ ও অভিশাপে “বিধর্মী” অন্যদিকে “জগৎবিখ্যাত”?

0

অমিত সরকার:-  কালী মন্দিরের ভেতরে দেবীর সামনে রয়েছে পূজার ফুল। পূজার নৈবেদ্য পুরোহিত সেই মুহূর্তে গিয়েছিলেন স্নান করতে। কিন্তু ফিরে এসে দেখলেন এক অদ্ভুত দৃশ্য। তিন চার বছরের এক ছেলে সমস্ত ফুলগুলি ছরিয়ে দিয়েছে। ছড়িয়ে-ছিটিয়ে দিয়েছে সমস্তটাই বিলল পত্র থেকে আরম্ভ করে সমস্ত ফুল। তখন যত্রতত্র ছরিয়ে রয়েছে।

হঠাৎ শিশুটির মা গেলেন রেগে। একটু পরে স্নান সেরে সেখানে আসবেন পুরোহিত। পুরোহিত আবার ছেলেটির মাতামহ। তিনি ছিলেন কালীর সাধক। পুরোহিত স্নান সেরে ফিরলেন সেখানে। কিন্তু সেটি দেখে তিনি রেগে অগ্নিকুণ্ড। মেয়ের মুখের দিকে তাকিয়ে বললেন তোর ছেলে বিধর্মী হবে। একথা বলার পরেই পুরোহিত সেই মায়ের মুখের দৃশ্য দেখে হঠাৎ শান্তকণ্ঠে যা যা বলে গিয়েছিলেন তা ভবিষ্যতে সমস্ত ফলে গিয়েছে।

কিছুটা আশীর্বাদ আবার কিছুটা অভিশাপে। তিনি বলেছিলেন অশান্ত ছেলেটির ভবিষ্যৎ জীবনে বিধর্মী হবে ঠিকই কিন্তু জগদ্বিখ্যাত হবে।

এবার পাঠক মনে প্রশ্ন জাগে কে এই অভিশপ্ত ছেলে? তিনি হলেন রাজা রামমোহন রায় । ইতিহাসটা অনেকটা গোপনে রয়েছে। তার লেখা আছে ইতিহাসের পাতায়। যিনি পরবর্তীতে বলেছিলেন -“আমাদের জাতিভেদ এক জাতির মধ্যে অসংখ্য শ্রেণীভেদ আমাদেরকে দেশপ্রীতি থেকে বঞ্চিত করছে” তিনি আর কেউ নন তিনি রাজা রামমোহন রায়।