কঙ্গনা যখন মুম্বাইকে অপমান করেছিল,তখন অক্ষয় কুমারের মতো অভিনেতারা কোথায় ছিল : সঞ্জয় রাউত

0

সমাচার ডেস্ক: বলিউডের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী শিবসেনার প্রকাশ্যে দ্বন্দ্ব লেগে রয়েছে। এই দ্বন্দ্বে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী শিবসেনা জনপ্রিয় অভিনেতা অক্ষয় কুমারকে জড়িয়েছেন। শিবসেনার বক্তব্য কঙ্গনা রানাউত যখন মুম্বাই কে পাক অধিকৃত কাশ্মীর বলেছে তখন কেউ প্রতিবাদ করেনি।মুম্বই শহরকে এই সব অভিনেতার ভালবাসেন বলে দাবি করলেও, যখন মুম্বই শহর অপমানিত হয় তখন অক্ষয় কুমারের মতো জনপ্রিয় অভিনেতা চুপ করে ছিলেন।

মুম্বইকে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সঙ্গে কঙ্গনার তুলনার পরই মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে অশান্তি সৃষ্টি হয়। বেআইনি জমিতে কঙ্গনার প্রোডকশন হাউজের অফিস ভেঙে ফেলে মহারাষ্ট্র সরকার৷ যা নিয়ে কঙ্গনা-মহারাষ্ট্র শিবসেনা দ্বৈরথ চরমে ওঠে৷

সঞ্জয় রাউত লিখেছেন যে, একজন অভিনেত্রী মুম্বইতে বসে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে কটূ ভাষায় কথা বলছেন। আর মহারাষ্ট্রের লোকেরা বিশেষ করে অন্যান্য অভিনেতারা কোনও প্রতিক্রিয়া দিচ্ছে না, এ কেমন কথা? তিনি আরও লিখেছেন, ‘হিন্দি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কমপক্ষে অর্ধেক মানুষের উচিৎ ছিল মুম্বইয়ের অপমানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা বা এই নিয়ে মুখ খোলা। কঙ্গনার মতামত যে পুরো ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির মতামত নয়, সেটা পরিষ্কার করা উচিত ছিল। অক্ষয় কুমারের মতো কমপক্ষে বড় অভিনেতাদের এর প্রতিবাদ করা উচিৎ ছিল বলে মত সঞ্জয়ের৷ কারণ তিনি মনে করেন যে মুম্বইও তাদের পরিচিতি দিয়েছে। তবে সেই মুম্বইয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতে সমস্যা হচ্ছে কেন?

অনুপম খের ও শেখর সুমনের মতো খুব কম অভিনেতারা আই বিষয় এ মুখ খুলেছেন। এখনো বলিউডের একটা বড় অংশ চুপ করে  রয়েছে।রাউত চলচ্চিত্র জগতে আরও আক্রমণ করে লিখেছেন, ‘মুম্বইয়ের গুরুত্ব কেবল শোষণ এবং অর্থ উপার্জনের জন্য৷ তারপরে যদি কেউ প্রতিদিন মুম্বইকে অপমান করে তা নিয়ে কোনও প্রতিবাদই হয় না।

সঞ্জয় রাউত আবারও কঙ্গনাকে টার্গেট করেছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘যদি তাঁর অবৈধ নির্মাণে হাতুড়ি চালানো হয় তাতে সমস্যা কোথায়? কেন এই নিয়ে তিনি নাটক করেছিলেন! কিন্তু আইন অমান্য করে তাঁর মুম্বইকে পিওকে-র সঙ্গে তুলনা করা ঠিক নয়৷