উত্তরপ্রদেশে করোনা পরীক্ষায় গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে আক্রান্ত ডাক্তার-নার্স ! দোষীদের বিরুদ্ধে কড়া সাজার হুঁশিয়ারি যোগীর

0

সমাচার ডেস্ক: দেশে প্রথম ধাপের ২১ দিনের লকডাউন সম্পূর্ণ হয়েছে । নতুন করে শুরু হয়েছে ১৯ দিনের লকডাউন। এখন পর্যাপ্ত পরিমাণে কিট থাকায় দূত গতিতে চলছে কোভিড-১৯ টেস্ট । তাই দিন দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ।এর মধ্যেই লখনউতে ফের ৪৫ জনের দেহে মিলেছে করোনার সংক্রমণ। এদিকে দেশজুড়ে বাধ্যতামূলক হয়েছে মাস্ক। যেখানে সেখানে থুতু ফেলাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবেই গণ্য হয়েছে।

কিন্তু যোগীর রাজ্যে উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদে করোনা সন্দেহে হাজি নইব এলাকায় কিছু মানুষের সোয়াব সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের একটি দল। সঙ্গে পুলিশও ছিল । করোনার বিশেষ অ্যাম্বুল্যান্স সেখানো পৌঁছলেই চিকিৎসক-নার্সদের উদ্দেশ্য করে পাথর ছোঁড়া শুরু হয়। পাথরের আঘাতে আহত চিকিৎসক ও নার্সরা।

সেই অ্যাম্বুল্যান্সের চালক সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন ‘ওখানে কিছু জন কোভিড-১৯ তে আক্রান্ত জানতে পারার পর মেডিক্যাল টিম যায় তাদের সোয়াব পরীক্ষা করতে । সেই সময় পুলিশের সামনে এলাকাবাসী আক্রান্তকে আটকে রেখে চিকিৎসকদের উপর ইট পাথর ছুড়তে শুরু করে।

যদিও সেই সম্পূর্ণ ঘটনাটির নিন্দা জানিয়েছে যোগী আদিত্যনাথ । তিনি বলেন ,ওই ঘটনার দোষীদের চিহ্নিত করা হয়েছে। দোষীদের বিরুদ্ধে NSA আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।