এবার কোভিড টেস্ট হলো বিশালাকৃতির গরিলার, দেখুন সেই মুহূর্তের ছবি

0

সমাচার ডেস্ক: প্রতিদিন করোনা সংক্রমনের সংখ্যা বেড়েইচলেছে। সংক্রমণ যত বাড়ছে তত টেস্টেও বাড়ছে‌। কিন্তু এতদিন অবধি মানুষের করোনা টেস্ট হতো। কিন্তু এই প্রথম শোনা গেল মানুষের না টেস্ট হচ্ছে একজন গরিলার।

শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি যে দৈত্যাকার এক গরিলার করোনা টেস্ট হলো।হাসপাতালের বেডে শুয়ে আছে বিশাল আকার গরিলা টি আর তাকে ঘিরে আছে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী দল। এই বিশাল আকৃতির গরিলা ফ্লোরিডার মিয়ামি চিড়িয়াখানার সদস্য।তাকে সেই চিড়িয়াখানা থেকে হাসপাতালের বেড পর্যন্ত এনে অচেতন করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নাজেহাল অবস্থা।

বিশালাকৃতির এই গরিলার বয়স 31 বছর।তার নাম শ্যাঙ্গো। বিগত কয়েক দিন ধরেই তার গায়ে জ্বর আসছিল।বুধবার সে তার ছোট ভাই 26 বছরের বার্নের সাথে ভীষণভাবে লড়াই করে। এরপর রক্তারক্তি হয়ে যায়।

এরপর 433 পাউন্ডের শ্যাঙ্গোকে হাসপাতালে আনা হয় হেতু করোনার টেস্ট। তবে আশার কথা এই যে,তার করোনার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে যদিও ক্ষত সারতে অনেক দিন সময় লাগবে বলেই জানা গেছে।

শ্যাঙ্গো আর তার ভাই বার্নের জন্ম স্যানফ্রান্সিসকোর চিড়িয়াখানাতে।ফ্লোরিডার চিড়িয়াখানায় তাদেরকে নিয়ে আসা হয় 2017 সালে।হাসপাতালে তার করোনা টেস্টের পাশাপাশি এক্সরে, আল্ট্রাসাউন্ড,ব্রংকোসকপি,ও টিবি পরীক্ষা ও করা হয়।

হাসপাতালের বেডে শোয়ানো পর শ্যাঙ্গোকে অচেতন করে সকল ডাক্তাররা দেখতে থাকেন। কিন্তু অচেতনের আগে অবধি হাসপাতালকে পুরো পাগলা করে দিয়েছিল শ্যাঙ্গো একাই!