ডেঙ্গুর উপসর্গ নিয়ে রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে

0

হক জাফর ইমাম, মালদা:ডেঙ্গুর উপসর্গ নিয়ে রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে। রবিবার পর্যন্ত১৫ জনেরও বেশি ডেঙ্গু আক্রান্ত, তাদের মধ্যে এক কিশোর রয়েছে। তবে ডেঙ্গু রোগীদের জন্য হাসপাতলে আলাদা ওর্যাড না থাকায় মেডিসিন ওয়ার্ডে সাধারণ রোগীর সাথেই থাকছে ডেঙ্গুতে আক্রান্তেরা। ফলে অনান্য রোগীদের মধ্যে সংক্রমণের আশঙ্কা তৈরী হয়েছে । যদিও মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের কতৃপক্ষ ডেঙ্গু আক্রান্তদের মশারি দিচ্ছে।

তাদের নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে ২৪ ঘন্টা যেন তারা মশারির ভিতরে থাকে। মেডিকেল সুত্রে জান গিয়েছে মহিলা ও পুরুষ মেডিসিন ওর্যাডে বর্তমানে প্রায় ১০ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। তবে সকলের প্লেটলেট এক লক্ষের উপরে রয়েছে যদিও শনিবার এক রোগীর প্লেটলেট কুড়ি হাজার নেমে এসেছিল রোগীকে রক্ত খাওয়া হয়েছে। দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে তারা। এছাড়াও সাধারণ জ্বর নিয়ে শতাধিক রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। প্রতিদিন বর্হিবিভাগেও জ্বরের রোগীর ভিড় বাড়ছে। মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের কর্তারা জানান আধিকাংশ রোগী ভাইরাল ফিবারে আক্রান্ত। ভয়ের কোন কারণ নেয়। মেডিকেল সুত্রে জানা গিয়েছে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে ভর্তি রয়েছে মঞ্জু দাস সরকার, দেব্রত সরকার এরা সম্পর্কে মা ছেলে। বাড়ি বামোনগোলা। সবতুরা খাতুন(১৮)বাড়ি মানিকচক,আসনারা খাতুন বাড়ি মিল্কী,নরেন শা পুরাতন মালদা ,হাসান বাড়ি কালিয়াচক ও শাবির হোসেন বাড়ি কালিয়াচক।

মালদা মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালের এমএসভিপি অমিত কুমার দাঁ বলেন, কিছু ডেঙ্গু রোগী ভর্তি রয়েছে। তবে তাদের প্লেটলেট এক লক্ষের বেশি রয়েছে তবে একজন রোগীর শনিবার প্লেটলেট কুড়ি হাজার নেমে এসেছিল। ডেঙ্গু রোগীদের জন্য আলাদা কোন ওর্যাড নেয়। তবে মেডিসিন ওর্যাডে তাদের জন্য আলাদা বেড করা হয়েছে। সেখানে সাধারণ অন্য রোগীদের রাখা হয়না। ডেঙ্গু আক্রান্তদের মশারি দেওয়া হচ্ছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা বাড়ায় ডেঙ্গু আক্রান্তদের সংখ্যা অনেক কমেছে।