নাইজেরিয়ার সরকারের নয়া আইন ধর্ষণ করলেন ধর্ষককে করা হবে নপুংসক !

0

সমাচার ডেস্ক:আমাদের দেশে গুরুতর অপরাধ করলেও খুব বেশি কয়েক বছরের জেল হয়। তাও আবার সাথে পলিটিক্যাল সাপোর্ট থাকলে সেই অবস্থা থেকে বেরোনো খুব কঠিন ব্যাপার না।আমাদের দেশে ধর্ষণ এর সাজা খুব কম, নির্ভয়া কাণ্ডে সাজা হলো তাও অনেক বছর পর।

দিন কয়েক আগেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এমন একটি শাস্তির কথা বলছিলেন। অপরাধের গুরুত্ব বুঝে ধর্ষককে জনসমক্ষে ফাঁসি বা চিরজীবনের মতো নপুংসক করে দেওয়ার কথা বলেছিলেন। তিনি যে বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে ভাবছেন, সাংবাদিকদের তা জানান পাক প্রধানমন্ত্রী। ইমরানের কাছে যা এখনও ভাবনাচিন্তার স্তরে রয়েছে,

কিন্তু চলতি সপ্তাহেই ধর্ষণের সাজা নিয়ে নাইজেরিয়ায় নতুন আইন পাস হয়েছে। এই আইনের ফলে ধর্ষককে অস্ত্রোপচার করে নপুংসক করে দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। তবে, শিশু ধর্ষণের ক্ষেত্রে কোনওরকম ছাড় নেই। নয়া আইনে মৃত্যুদণ্ডের বিধানই দেওয়া হয়েছে।

নাইজেরিয়ার কাদুনা রাজ্যে এই ধরনের আইন পাস হয়েছে, এই আইনে বলা হয়েছে,১৪ বছরের কম বয়সি কাউকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণ হলে, ‘সাজা মৃত্যুদণ্ড। বাকি ক্ষেত্রে ধর্ষণকারীকে অস্ত্রোপচার করে নপুংসক করে দেওয়া হবে।’

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও মনে করেন ধর্ষণের শাস্তি হিসেবে জনসমক্ষে ফাঁসি অথবা নপুংসক করে দেওয়ার মতো আইন থাকা প্রয়োজন,ইমরান খান এই বিষয় নিয়ে চিন্তা করলেও নাইজেরিয়ার কাদুনা রাজ্যে এই আইন প্রচলিত করে দেই।

পাক প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘হত্যা মামলার বেলায় যেমন অপরাধের উদ্দেশ্য ও ধরন বিবেচনায় নিয়ে প্রথম, দ্বিতীয় বা তৃতীয় ক্যাটেগরিতে ফেলা হয়, ধর্ষণের অভিযোগের বেলায় এমন হতে পারে৷ প্রথম ক্যাটেগরির অপরাধের শাস্তি হতে পারে রাসায়নিক প্রয়োগে নপুংসক করে দেওয়া। যাতে অপরাধী দ্বিতীয় বার এই ধরনের অপকর্ম করার সুযোগ না পায়৷’