কোভিড টেস্ট করাতে গিয়ে চার বছর পর নিখোঁজ ছেলেকে খুঁজে পেলেন মা

0

সমাচার ডেস্ক: ভাগ্য হয়তো একেই বলে! যা পাওয়ার কথা নয় তাও মানুষ পেয়ে যায় আচমকা! আর যা চির নিশ্চিত বলে জানি তাই হারিয়ে যায় হাতের থেকে!কোভিড টেস্ট করাতে গিয়ে হারিয়ে যাওয়া সন্তানকে খুঁজে পেলেন মা। চার বছর আগে হারিয়ে যাওয়া ছেলেকে খুঁজে পেলেন মা! ভাগ্য ই মিলিয়ে দিলো তাদের!

‘মুসকান কোভিড ১৯’ প্রজেক্টের মাধ্যমে অন্ধ্রপ্রদেশের পথশিশু অনাথ বাচ্চাদের কোভিড টেস্ট করানো হচ্ছিল। তখনই এই প্রজেক্ট এর লোকেরা হারিয়ে যাওয়া এই বাচ্চার খোঁজ পায়।

২০১৬ সালে পশ্চিম গোদাবরী ড্রিস্টিক্ট বব্বা শ্রী ললিতা থাকতেন। স্বামী মারা যাওয়ার পর দুই ছেলেকে নিয়ে তিনি ক্ষেতের কাজ করতেন। হঠাৎ ই তার বছর সাতের বড় ছেলেটি হারিয়ে যায়। বাচ্চাটিকে কিডন্যাপ করে বিহারের শিশু শ্রমিক হিসেবে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

সেখান থেকে এক সময় সে পালিয়ে আসে। এরপর বিজয়েন্দ্র স্টেশনে পুলিশ ছেলেটিকে খুঁজে পায়। চার বছর পরিবার ছাড়া ছিল সে। পুলিশকেও সে তার নিজের ঠিকানা বলতে পারেনি। তখন‌ শিশুটিকে অনাথ আশ্রমের রেখে দেওয়া হয়।

এরপর কোভিড ১৯ টেস্ট করাতে গেলে বাচ্চাটি বলে সে পালাকল্লু গ্রামের কাছে কোথাও একটা থাকতো। এই খবর জানার পর তারা বাচ্চাটিকে নিয়ে যাওয়া হয় ওই গ্রামে। সেখানে নিজের সন্তানকে দেখেই চিনতে পারেন মা। চার বছর পর মা আর ছেলের মিলন হলো।