স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার জেরে তিন মেয়েকে নর্দমায় ডুবিয়ে খুন করল মা।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পুদুচেরির কুড্ডালোরের সেথিয়াথোপের। ২৭ বছরের সাথিয়াবতী  তার তিন মেয়েকে খুন করে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করে । উদ্ধারকারী দলকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তিন শিশুর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

তদন্তে জানা গিয়েছে, সাত বছর আগে  এস মণিকান্দনের সঙ্গে বিয়ে হয় সাথিয়াবতীর । তাদের তিনটি কন্যাসন্তান হয় আক্ষয়া, নন্থিনি ও দর্শিনী। মদ্যপান করে  প্রায় স্বামী ঝগড়া করত বলে স্ত্রীর অভিযোগ। এমনই এক ঝগড়ার পর গত ২৪ সেপ্টেম্বর মেয়েদের নিয়ে মায়ের কাছে চলে গিয়েছিলেন সাথিয়াবতী।

 তার মা তাকে বুঝিয়ে স্বামীর কাছে ফিরে যেতে রাজি করেন কিন্তু স্বামীর কাছে না-গিয়ে সেথিয়াপোর জাংশনে নেমে গিয়ে মেয়েদের নিয়ে ঘুরতে থাকে সাথিয়াবতী। বুধবার রাতে বড় নর্দমায় ছুড়ে ফেলে তিন কন্যাকে। বৃহস্পতিবার সকালে সে থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করে। পুলিশ তাকে আটক করেছে।