২১ জুনের মহাজাগতিক সূর্যগ্রহণেই বিনাশ হবে করোনা? আসল সত্য জেনে নিন

0

সমাচারর ডেস্ক: রবিবার (২১ জুন ) মহাজাগতিক এই সূর্যগ্রহণের বিরল দৃশ্য দেখবার জন্য এখন মুখিয়ে রয়েছে ভারত। তবে শুধু উত্তর ভারত নয় পাশাপাশি মহাজাগতিক দৃশ্যের সাক্ষী থাকবে কলকাতা। এটি হবে বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণ। এদিন ভারতের অধিকাংশ জায়গা থেকে মোটামুটি ভাবে এই সূর্যগ্রহণ টি দেখা যাবে। তবে শুধু সূর্য গ্রহণ নয় রবিবার এই বছরের সব থেকে বড় দিন।

তবে চেন্নাইয়ের বিজ্ঞানী ড: কেএল সুন্দর কৃষ্ণ কিছু দিন আগে জানিয়েছিলেন, এই করোনা ভাইরাস বায়ূমন্ডল থেকে এসেছে। এবং গত ২৬ ডিসেম্বর সূর্যগ্রহণের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে করোনাভাইরাসের।চেন্নাইয়ের বিজ্ঞানীর মতে, সূর্যগ্রহণের পর নি:সৃত নিউট্রনের মিউটেশন কৃত কণা মিথস্ক্রিয়ার ফলে এই মহামারী শুরু হয় অর্থাৎ তাঁর মতে জৈব পারমাণবিক মিথস্ক্রিয়া ভাইরাসের একটি অংশ।

কিন্তু এই কথা মানতে রাজি নন বিশেষজ্ঞরা। তাদের কথা অনুযায়ী করোনা প্রতিরোধের একমাত্র উপায় হাত ধোয়া ও মাস্ক ব্যবহার করা।করোনা শব্দের অর্থ ক্রাউন বা মুকুট। ১৯৮০ সালে ভাইরাসটিকে মাইক্রোস্কোপে দেখে সূর্যগ্রহণের সময়ের মুকুটের মতো দেখতে লাগে। তাই এই ধরনের নাম করন করা হয়েছে।

তবে নাসা জানিয়েছে সূর্যের করোনা অর্থাৎ ক্রাউন হলো সূর্যের বায়ূমন্ডলের বাইরের অংশ। যা খালি চোখে দেখা যায়না। তবে সূর্যগ্রহণের সময় দেখতে মেলে। এই সৌর করোনার একমাত্র পৃথিবীর করোনাভাইরাসকে কোনও ভাবে প্রভাবিত করার উপায় থাকলে তা হলো পথিবীর সংযোগে আসা। কিন্তু সূর্য থেকে বহুদূরে পৃথিবী অবস্থিত । তাই সংযোগে আসার কারন নেই।