রাস্তায় বঙ্গ প্রশাসনের ঝড়ো ব্যাটিং কুর্নিশ গোটা বাংলার। তাও ক্লোজ 7 পুলিশ! শিথিলতা কেন? বাড়ছে আড্ডা,জমায়েত

0

সমাচার ডেস্কঃ- লকডাউন এর মার্কেট। চারদিকে তাও মানুষের পরিচয় হই হই আর তা চলতে জমিয়ে আড্ডা। কিভাবে সারবে করোনা? মানুষদের সেবায় এরকম প্রশাসন তাদের ডিউটি করে চলছিল। তারা মানুষের প্রাণ বাঁচাতেই পথে নেমে পড়েছিল। তার জন্য দিতে হচ্ছিল কড়া হাতে দাওয়াই। কিন্তু এবার রাশ টানলেন পুলিশ মন্ত্রী নিজেই। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে যেখানে মানুষের ভিড় আর মানুষের কথা না শোনার প্রবণতা ক্রমশ বেড়ে চলেছে আর এই ভাইরাস এভাবে শেষ করে দিয়েছে ইতালিকে।

পশ্চিমবঙ্গ তে সেদিন দেখতে হতে পারে? কেন প্রশাসনের হাত থেকে কেড়ে নেয়া হচ্ছে এমন ক্ষমতা? কেন তাদের আজাদী দেওয়া হচ্ছে না সমস্ত বিষয়টার উপর? তাহলে হয়তো মানুষ কিছুটা হলেও সচেতন হতে পারে । পক্ষে-বিপক্ষে নিয়ে মতামত থাকতেই পারে তবে মানুষের জীবন বাঁচাতে পুলিশের এই কার্যকারিতাকে অনেকেই হাততালি দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন।তবে এদিন মমতা জানান, ‘কেউ রেশন তুলতে বেরোলে বা ওষুধ কিনতে গেলে তাকে আটকানো যাবে না।’ পুলিশকর্মীদের সতর্ক করে তিনি বলেন, ‘ক্ষমতার অপব্যবহার বরদাস্ত করবে না প্রশাসন।’

শুক্রবার জানালেন সেজন্য ৭ জন পুলিশকর্মীকে ইতিমধ্যে ক্লোজ করেছে স্বরাষ্ট দফতর। লকডাউন শুরু পর থেকেই ‘পুলিশ রাস্তায় ব্যাটিং করছে’ বলে ভাইরাল হয়েছিল মিম।