সুপারস্টার প্রভাস হায়দরাবাদের অভয়ারণ্য দত্তক নিলেন , দান করলেন ২ কোটি টাকা!

0

সমাচার ডেস্ক:দক্ষিণী সুপারস্টার প্রভাস অভিনয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন সমাজসেবা মূলক কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখেন । অর্থ সাহায্য করে থাকেন বিভিন্ন ক্ষেত্রে দক্ষিণী সুপারস্টার প্রভাস।

হায়দরাবাদ শহরের অদূরে অবস্থিত কাজিপল্লি রিজার্ভ ফরেস্টের (Khazipally Reserve Forest) প্রায় ১৬৫০ একর এলাকা তিনি দত্তক নিতে চলেছেন। অভয়ারণ্যের সামগ্রিক দেখভালের জন্যে তিনি বন দফতরের হাতে  তুলে দিয়েছেন ২ কোটি টাকা।

বনমন্ত্রী আল্লোলা ইন্দ্র করণ রেড্ডি এবং রাজ্যসভা সাংসদ জোগিনাপল্লি সন্তোষ কুমারের সঙ্গে মিলে প্রভাস আর্বান ফরেস্ট পার্কের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন । অস্থায়ী ওয়াচ টাওয়ার থেকে অভয়ারণ্যের শোভা উপভোগ করার পাশাপাশি বেশ কিছু গাছের চারা লাগান প্রভাস।

বন দফতরের তরফে জারি করা বিবৃতি অনুযায়ী, ‘বন দফতর অভয়ারণ্যের একটি ছোট অংশ পরিবর্তিত করতে চলেছে আর্বান ফরেস্ট পার্কে। অরণ্যের বাকি অংশ কনজারভেশন জোন হিসেবেই সংরক্ষিত থাকবে। কাজিপল্লি রিজার্ভ ফরেস্ট বিখ্যাত এখানকার একাধিক ঔষধি গাছের জন্যে যা তিনটি কম্পার্টমেন্টে রয়েছে। দ্রুত ১৬৫০ একর জায়গায় কাঁটাতার লাগানোর কাজ শুরু করা হবে এবং ইকো পার্ক তৈরির কাজ চালু করা হবে। করা হবে পার্কে ঢোকার গেট, সি-থ্রু দেওয়াল, হাঁটার ট্র্যাক, ভিউ পয়েন্ট, গাজিবো। প্রথম দফাতেই তৈরি করা হবে মেডিসিনাল প্লান্ট সেন্টার।’

দক্ষিণী অভিনেতা  প্রভাস জানান, কাজিপল্লি অভয়ারণ্যের একাংশ দত্তক নেওয়ার ব্যাপারে তিনি অনুপ্রেরণা পেয়েছেন বন্ধু সন্তোষ কুমারের কাছ থেকে। কাজ এগোলে আগামীদিনে আরও অর্থ সাহায্য করবেন বলেও তিনি জানিয়েছেন। একই সঙ্গে তিনি বন দফতরকে অনুরোধ করেছেন রিজার্ভ ফরেস্টের কাজ দ্রুত এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার যাতে HMDA এলাকায় বাড়ানো যায় সবুজায়ন। উল্লেখ্য, সন্তোষ কুমারের প্রচারিত Green India Challenge –এরও সংক্রিয় অংশ প্রভাস ।