২১ জুন সূর্যগ্রহণ,সূর্যকে চুরি করে নিয়েছে কোনও রাক্ষুসে কুকুর!দেবদেবী রুষ্ট!দুর্যোগের আশঙ্কা!পৌরাণিক তথ্য কি বলছে?

0

সমাচার ডেস্ক: ২০২০ সালের প্রথম সূর্যগ্রহণ ২১ শে জুন দেখা যাবে। এটি ভারত থেকে দৃশ্যমান হবে। সকাল ৯: ১৫ থেকে গ্রহণ শুরু হবে এবং পূর্ণগ্রহণটি সকাল ১০:১৭ মিনিটে শুরু হবে। বেলা ১২:১০ মিনিটে হবে সর্বাধিক গ্রহণ, সেই মুহূর্তে হবে বলয় গ্রাস।

২০২০ সালের সূর্যগ্রহণ এশিয়া, আফ্রিকা, প্রশান্ত মহাসাগর এবং ভারত মহাসাগরের বেশিরভাগ এলাকা থেকে দেখা যাবে।দেশ যতই উন্নত হোক কিন্তু পৌরাণিক কাহিনী ঘিরে রয়েছে সেই দেশে সাহিত্য সংস্কৃতি থেকে আরম্ভ করে ঐতিহ্যকে। আর তারই নিদর্শন পাওয়া গেল এই তথ্য আলোচনায়।

পৌরানিক কাহিনি। দেখে নেওয়া যাক, সেই সব কাহিনিকে। কোরিয়ানরা মনে করেন যে সূর্যকে চুরি করে নিয়েছে কোনও রাক্ষুসে কুকুর। কোরিয়ান লোক সঙ্গীতে এই নিয়ে বহু সুরও বাঁধা হয়েছে। এবার ঘুরে দেখা যায় অনেকটা আফ্রিকার দিকে। পশ্চিম আফ্রিকার বেনিন ও টোগে উপজাতির মানুষরা বিশ্বাস করেন যে ‘গ্রহণ’ মানে সূর্য ও চন্দ্রের মধ্যে ক্রমাগত যুদ্ধ। তাঁদের আরও ধারণা যে একমাত্র পৃথিবীই এই যুদ্ধ মেটাতে সক্ষম। আর যে দেশকে পৌরাণিক কাহিনীর পিঠস্থান বললেও ভুল হবে না। প্রাচীন গ্রিসের পৌরনিক কাহিনিতে মনে করা হত সূর্যগ্রহণের ঘটনা মানেই কোনও না কোনও দেবদেবী রুষ্ট হয়েছেন।

একই তো চারিদিকে করোনা পরিস্থিতি তার মধ্যে আম্মানের প্রবল চাপ প্রকৃতি যেন রুদ্ধশ্বাস ফেলছে মানুষের দুয়ারে। আর এর মধ্যেই বারবার ঘুরে আসা গ্রহণ একই পরিণতি সৃষ্টি করবে তা কেউ জানে না। কারণ এ অনেকটা বিশ্বাসের জগতের উপর নির্ভর করছে।

এটি উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ। উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ তখনই হয় যখন সূর্য ও চন্দ্রের মাঝামাঝিতে পৃথিবী চ‌লে এলেও সরলরেখায় থাকে না।

৫ জুন রাত ১১টা ১৫ থেকে শুরু হবে গ্রহণ। ৬ জুন রাত ২টো ৩৪ মিনিট পর্যন্ত চলবে। পূর্ণাঙ্গ পর্যায়ে গ্রহণটি দেখা যাবে ৬ জুন রাত ১২টা ৫৪ মিনিটে। গ্রহণ চলবে ৩ ঘণ্টা ১৮ মিনিট। তা ইতিমধ্যেই সম্পন্ন হয়েছে। এই চন্দ্রগ্রহণের পর যে রয়েছে আরও একটি সূর্যগ্রহণ। বছরে এতগুলো গ্রহণ পরপর হওয়ার ফলে কি প্রভাব পড়তে চলেছে পৃথিবীতে? সত্যি কি এর কোনো প্রভাব রয়েছে? নাকি এর সমস্ত টাই কুপ্রভাব? যার জন্য 2020 সালকে অনেকেই বলছেন অভিশপ্ত দুই হাজার কুড়ি!

শুক্রবারের পরে ঠিক ১৬ দিনের মাথায় ২১ জুন হবে সূর্যগ্রহণ। এই বছরে আরও দু’বার চন্দ্রগ্রহণ রয়েছে। একটি হবে ৫ জুলাই এবং শেষেরটি ৩০ নভেম্বর।। ভারত ছাড়াও ইউরোপ, অস্ট্রেলিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ।