কুমড়োর বীজ ফেলে দিচ্ছেন , এতে রয়েছে আশ্চর্যজনক গুণাগুণ !

0

ওয়েব ডেস্কঃ কুমড়ো খেতে কেনা পছন্দ করেন । সবজি হোক বা ভাজা এটি স্বাদ যেমন রয়েছে তেমনি রয়েছে পুষ্টিগুণ । কিন্তু জানেন কুমড়োতে থাকা বীজের পুষ্টিগুণ সম্পর্কে , ফেলে দেবেন না , এটি খাবারের সঙ্গে রাখা অতি গুরুত্বপূর্ণ ।  আসুন জেনে নেওয়া যাক কুমড়োর বীজের বেশ কয়েকটি আশ্চর্য গুণ…

১) কুমড়ো বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক আর ম্যাগনেসিয়াম যা অস্টিওপোরোসিসের মতো হাড়ের সমস্যা নিরাময়ে সাহায্য করে।

২) কুমড়োর বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে জিংক, ফাইটোকেমিক্যাল যা রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বাড়ায়।

৩) কুমড়োর বীজে রয়েছে ট্রিপ্টোফ্যান নামের অ্যামাইনো অ্যাসিড যা সুখানুভূতি সৃষ্টিকারী হরমোনের নিঃসরণে সহায়তা করে এবং একই সঙ্গে মেলাটোনিন আর সেরোটোনিন নিঃসৃত হতে সহায়তা করে যা অবসাদ কাটিয়ে শরীর, মন তরতাজা করে তুলতে সাহায্য করে।


আরো পড়ুনঃ নিয়মিত মধু খাচ্ছেন তো ? জেনে নিন ঔষধি হিসেবে মধুর ব্যবহার


৪) কুমড়োর বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, সালফার, জিংক, ভিটামিন এ, বি আর ভিটামিন-কে যা চুল ও মাথার ত্বকের জন্য খুবই উপকারী। এই উপাদানগুলি চুলকে উজ্জ্বল ও ঘন করে তুলতে সাহায্য করে।

৫) কুমড়োর বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে এসেনশিয়াল ফ্যাটি অ্যাসিড যা সিবাম নামক তেলের নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখে।

৬) কুমড়োর বীজে রয়েছে সেরোটোনিন নামের রাসায়নিক উপাদান যা স্নায়ুতন্ত্রের চাপ কমিয়ে অনিদ্রার সমস্যা কাটাতে সাহায্য করে।

৭) কুমড়োর বীজে রয়েছে ডিএইচইএ (ডাই-হাইড্রো এপি-অ্যান্ড্রোস্টেনেডিয়ন) যা পুরুষের প্রোস্টেটের সমস্যা প্রতিরোধ করে কমায় প্রোস্টেট ক্যানসারের ঝুঁকি।

৮) কুমড়োর বীজ রক্তের ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। তাছাড়া কুমড়োর বীজে থাকা ম্যাগনেশিয়াম রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে।