ভারত-চীন সংঘর্ষ নিয়ে মিথ্যে বলছেন মোদী, তোপ মনমোহন সিংয়ের

0

রাজীব ঘোষ:- নিজেকে ঢাকতে মিথ্যে বলছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নিজের শব্দচয়ন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সতর্ক থাকা প্রয়োজন। চীনের অবস্থান নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কোনো বিভ্রান্তি ছড়ানো উচিত নয়। এক বিবৃতিতে বলেছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং।

প্রসঙ্গত, সর্বদল বৈঠক এরপরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ভারতে চীনের কোনো আগ্রাসন হয়নি। সীমান্ত লঙ্ঘন করতে পারেনি চিন সেনা। কোনো সেনা চৌকিতে দখল করতে পারেনি চীন। ভারত মাতার দিকে চোখ তুলে তাকানোর চেষ্টা করেছিল যারা তাদের উচিত শিক্ষা দেওয়া হয়েছে। ভারত শান্তি ও উন্নয়ন চায়, ভারত কখনো বাইরের শক্তির কাছে মাথা নত করেনি, করবেও না। দেশের সুরক্ষায় যা যা প্রয়োজন সব করা হবে।

 

পরিস্থিতি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য ভারতীয় সেনাকে পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। সেনা তাৎক্ষণিক জবাব দিতে তৈরি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির চীনের আগ্রাসন প্রসঙ্গে এই মন্তব্যের পর বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, কেউ যদি সীমান্ত পেরিয়ে না এসে থাকে, তাহলে কুড়ি জন ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু কিভাবে হল? বিতর্ক শুরু হতেই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়।

 

বিবৃতি জারি করে বলা হয়, অসৎ উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের অপব্যাখ্যা করার চেষ্টা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর জানায় ১৫ জুন সর্বদল বৈঠকে গাল ওয়ানে কুড়ি জন জওয়ানের মৃত্যু নিয়ে আলোচনা হয়েছে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় আমাদের ভুখন্ডে চীনের অস্তিত্ব নেই। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর চীন পরিকাঠামো তৈরি চেষ্টা করেছিল। নিয়ন্ত্রণ রেখা লংঘন করার চেষ্টা ঐদিন তাদের সফল হয়নি। ১৬ বিহার রেজিমেন্ট সেই চেষ্টা ব্যর্থ করে। লাদাখ সংঘর্ষের প্রসঙ্গে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশ্যে মিথ্যা বলছেন বলে বিবৃতি দিয়েছেন।