নিখোঁজ নাবালিকা মালদা শহরের নিষিদ্ধ পল্লী থেকে উদ্ধার

0

হক জাফর ইমাম, মালদা:মালদা শহরের হংসগিরি লেনের নিষিদ্ধপল্লি থেকে ১৭ বছরের এক তরুণীকে উদ্ধার করলো মালদা ইংরেজবাজার থানার পুলিশ ও উত্তর প্রদেশে পুলিশের যৌথ উদ্যোগে। প্রায় এক বছর আগে মায়ের সঙ্গে দিল্লি যাওয়ার পথে উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদ স্টেশন থেকে নিখোঁজ হয়েছিল ওই নাবালিকা৷ এদিক ওদিক ঘুরে তার ঠাঁই হয়েছিল মালদা শহরের নিষিদ্ধপল্লিতে৷ মালদা ইংরেজবাজার থানা ও মোরাদাবাদ জিআরপি থানার পুলিশের সহযোগিতায় ফের সে ফিরতে চলেছে সমাজের মূল স্রোতে৷

ওই কিশোরীর বয়স ১৭ বছর৷ বাড়ি বিহারের বেথিয়া পুলিশ শিকারপুর থানা এলাকায়৷ তার বাবা প্লাস্টার অফ প্যারিসের মূর্তি তৈরি করেন৷ কর্মসূত্রে দিল্লিতে থাকেন৷ তিনি জানান, গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে বাড়ি থেকে দিল্লি যাচ্ছিল৷ মোরাদাবাদ স্টেশনে মেয়ে জল নিতে ট্রেন থেকে নামে৷ কিন্তু জল নিয়ে ট্রেনে ওঠার আগেই ট্রেন ছেড়ে দেয়৷ তারপর থেকে মেয়ের আর কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না৷ পরদিন তিনি দিল্লি পুলিশের পাশাপাশি মোরাদাবাদ জিআরপি থানায় মেয়ের নামে মিসিং ডায়ারি করেন৷ কিন্তু এতদিন মেয়ের কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না৷ কয়েকদিন আগে ফোন মারফৎ জানায়, সে মালদার নিষিদ্ধপল্লিতে রয়েছে৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা মোরাদাবাদ জিআরপি থানায় সেই খবর দেন৷ এরপরেই মোরাদাবাদ রেল পুলিশের সঙ্গে তিনি আজ মালদায় আসি৷ রাতে তাঁর মেয়েকে উদ্ধার করে পুলিশ৷

ঘটনা সম্পর্কে মোরাদাবাদ জিআরপি থানার সাব ইন্সপেকটর বাবুরাম বলেন, গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর এই কিশোরী মোরাদাবাদ স্টেশন থেকে নিখোঁজ হয়ে যায়৷ প্রথমে মেয়েটির পরিবারের লোকজন দিল্লি পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে৷ পরে তাঁরা বিষয়টি জানতে পারেন৷ দীর্ঘদিন ধরে তল্লাশি চালিয়েও তাঁরা মেয়েটির কোনও সন্ধান পাচ্ছিলেন না৷ শেষ পর্যন্ত মালদায় ওই কিশোরীর সন্ধান পাওয়া যায়৷ মালদা ইংরেজবাজার থানার সহযোগিতায় শনিবার রাতে তাকে উদ্ধার করা হয়েছে৷ আগামীকাল রবিবার উদ্ধার হওয়া নাবালিকাকে মালদা জেলা আদালতের মাধ্যমে মোরাদাবাদ নিয়ে যাওয়া হবে৷