মোদীর ‘হর ঘর তেরঙা’ প্রচারে কটাক্ষ মমতার বললেন ‘আমি জন্ম থেকেই তেরঙ্গা উত্তোলন করি ‘ তাঁর থেকে শেখার দরকার নেই

0

সমাচার ডেস্কঃ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী এবং তৃণমূল কংগ্রেসের সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) ‘হর ঘর তেরঙা’ প্রচারে কটাক্ষ করেছেন এবং বলেছেন- ‘আমি জন্ম থেকেই তেরঙ্গা উত্তোলন করি। তাঁর (প্রধানমন্ত্রী মোদী) কাছ থেকে এটা শেখার দরকার নেই। ইচ্ছেমতো তেরঙ্গা উত্তোলন করব। তারা আমাদের কী শেখাবে! রবিবার কলকাতার বেহালা এলাকায় অনুষ্ঠিত জনসভায় মমতা পরোক্ষভাবে বিজেপি বিধায়ক এবং বাংলা বিধানসভার বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারীকেও নিশানা করেন। তিনি বলেন, ‘বিজেপি সবচেয়ে বড় চোর। এর মধ্যে রয়েছে মীরজাফর ও গাদ্দার। যারা আশ্রয় দিয়েছিল তারাই এখন হুমকি দিচ্ছে।

গরু পাচার মামলায় গ্রেফতার তৃণমূলের বাহুবলী নেতা অনুব্রত মণ্ডলকে সমর্থন করায় মমতার কড়া সমালোচনা করেছেন বঙ্গ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। মমতার বৈঠক শেষ হওয়ার পরপরই অধীর সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন- ‘এটা খুবই দুর্ভাগ্যজনক যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, যিনি তাঁর সরকারকে ‘মা-মাটি-মানুষ কি সরকার’ বলে ডাকেন, তিনি চোরদের রক্ষা করছেন। তিনি তাদের পক্ষে ওকালতি করছেন। ‘জেল ভরো আন্দোলন’-এর জন্য মমতার ডাকে কটাক্ষ করে অধীর বলেছিলেন যে মমতার উচিত জেল ভরোর পরিবর্তে ‘চোর বাঁচাও আন্দোলন’ করা। আসলে, দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী মোদির সাথে বৈঠকে তিনি জানতে পেরেছেন যে কাকে কারাগারে রাখা হবে, তাই তিনি এই নাটক করছেন। অধীর দাবি করেন, মোদির সঙ্গে মমতা সমঝোতায় পৌঁছেছেন। তদন্ত সংস্থা মমতা ও তার পরিবারের কাউকে গ্রেফতার করবে না।