অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন লকডাউন করে হিন্দুবিরোধী মনোভাবের পরিচয় দিয়েছেন মমতা : নাড্ডা

0

সমাচার ডেস্ক:রাজ্য প্রশাসন এর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, বলেছে  গেরুয়া শিবিরকে রুখতে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য।সেই সুরেই যেন সুর মেলালেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাও। রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন লকডাউন করে মুখ্যমন্ত্রী আদতে তাঁর হিন্দুবিরোধী মনোভাবের পরিচয় দিয়েছেন বলেই তোপ দাগলেন তিনি। বাংলাজুড়ে পদ্ম ফুটবে বলেও ভারচুয়াল সভামঞ্চে মন্তব্য আশাবাদী নাড্ডার।

আরও জানিয়েছেন “জনবিরোধী নীতি, মানবতাবিরোধী নীতি নিয়ে এগিয়ে চলেছেন মমতা।রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন বাংলায় লকডাউন (Lockdown) করেছিলেন তিনি। এটি তাঁর হিন্দুবিরোধী মনোভাবের পরিচয়।” তাঁর দাবি, ভোটব্যাংকের কথা মাথায় রেখে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করছেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান।

রাজনৈতিক মহলের মতে, আসন্ন নির্বাচনে হিন্দু ভোটব্যাংককে লক্ষ্যমাত্রা হিসাবে নিয়েছে গেরুয়া শিবির। তাই রাম মন্দিরের মতো ইস্যুকে নিয়েই জনমানসে জায়গা করে নেওয়ার চেষ্টা করছে তারা। আবার ঠিক উলটো দিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও ধর্মভিত্তিক রাজনীতি করার অভিযোগে সরব বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাও।

জেপি নাড্ডা আরও বলেন “করোনা যোদ্ধাদের সঙ্গে অবিচার করছেন মুখ্যমন্ত্রী। পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরার ইস্যুকে ফের উত্থাপন করেন বিজেপি নেতা। তাঁর অভিযোগ, পরিযায়ী শ্রমিকদের এ রাজ্যে ফেরার ক্ষেত্রে কার্যত বাধাই দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভিনরাজ্য থেকে ফেরা ট্রেনগুলিকে সে কারণেই ‘করোনা এক্সপ্রেস’ বলে কটাক্ষও করেছিলেন তিনি”।