তোষণ রাজনীতি কে সামনে রেখে পরিযায়ী শ্রমিক ফেরাচ্ছে মমতা! অভিযোগ দিলীপের

0

রাজীব ঘোষঃ- শুধুমাত্র একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষকে বাড়িতে ফেরাতে তৎপর হয়ে উঠেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। তার বাকিদের জন্য কোনো হেলদোল নেই। বাংলার বহু মানুষ তীর্থ এবং চিকিৎসা বা অন্য কোনো কারণে বাইরের রাজ্যে গিয়ে আটকে রয়েছেন। তারা বাড়ি ফিরতে উদগ্রীব হয়ে উঠেছেন। রাজ্য সরকার করোনার জন্য যে হেল্পলাইন ফোন নম্বর দিয়েছে সেখানে যোগাযোগ করে তারা কেউ পাচ্ছে না। মমতার সরকারকে নিশানা করে অভিযোগ করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সম্প্রতি আজমীর থেকে বাংলায় ফিরেছেন প্রায় ১১০০ মানুষ।

তারা একটি বিশেষ সম্প্রদায়ের। দিলীপ ঘোষ বলেন, যারা এখনো পর্যন্ত ট্রেনে করে ভিন রাজ্য থেকে পশ্চিমবঙ্গে ফিরেছেন তাদের মধ্যে কোন পরিযায়ী শ্রমিক নেই। অথচ শ্রমিকদের জন্যই কেন্দ্রীয় সরকার ট্রেন চালাচ্ছে। বহরমপুর এর কংগ্রেস সাংসদ এবং লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী মমতা সরকারের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন তুলে বলেন, ব্যাঙ্গালোর থেকে বাংলায় শ্রমিক স্পেশাল করে পরিযায়ীদের ফেরাতে মমতা সরকার কোনো সিদ্ধান্ত জানাতে পারেনি। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এই কথা বলেছেন।

বিভিন্ন রাজ্যে রাজ্যে আটকে পড়া বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর জন্য কতগুলি ট্রেন লাগবে সেই ব্যাপারে রাজ্য সরকার এখন কিছুই বলছে না। এই বিষয়ে গেরুয়া শিবিরকে জবাব দিয়েছে জোড়া ফুল শিবির। তৃণমূলের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও ব্রায়েন বলেছেন, ভিন রাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর জন্য যাতায়াতের উপায় ছিল না। চরম দুর্দশায় শ্রমিকরা রয়েছেন। তাদের ফেরানোর জন্য মোদি সরকার ট্রেনের ভাড়া চাইছে।

রাজ্য সরকার পরিযায়ীদের ফেরানোর জন্য উদ্যোগী হয়েছেন এবং তাদের আর্থিক সহায়তার ঘোষণা করেছেন। কেন্দ্র পরিযায়ীদের আর্থিক সাহায্য করুক এবং তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিক। পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে এবার শাসক-বিরোধী দুই দলই একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ করল।