মালদা জেলা ১৫ আগস্ট স্বাধীন নয় ১৮ আগস্ট স্বাধীন

0

হক জাফর ইমাম, মালদা: মালদা জেলা ১৫ ই আগস্ট স্বাধীন হয়নি ১৮ ই আগস্ট স্বাধীন হয়েছে। রবিবার ১৮ ই আগস্ট মালদা শহরের বাবুপাড়া ও সিম্পথেটিক ক্লাবে স্বাধীন ভারতের পতাকা উত্তোলন করে স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়। এই দিনের স্বাধীনতা দিবসের পতাকা উত্তোলন করেন মালদা ইংরেজবাজার পৌরসভার পৌরপরিষদ অম্লান ভাদুড়ী। উপস্থিত ছিলেন প্রসেনজিৎ দাস সহ এলাকার সাধারণ মানুষ।

মালদা জেলার ইতিহাস থেকে জানা যায় ১৯৪৭ এর আগস্ট মাঝামাঝি যখন সারা ভারতবর্ষ স্বাধীনতার আবেগে ভাসতে শুরু করেছে।তখন মালদার মানুষের চিত্রটা একেবারেই বিপরীত।১৯৪৭ এর ১৩ অগাস্ট ঘোষণা করা হয় জেলার ১৬টি থানা তৎকালিন পূর্ব পাকিস্তানে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। ফলে,পরদিন ১৪ অগাস্ট জেলা কালেকটরেট ও মালদা মুসলিম ইন্সটিটিউটে তোলা হয় স্বাধীন পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা।তা দেখে গর্জে ওঠেন জেলাবাসী।

নতুন বিদ্রোহ দানা বাঁধতে শুরু করে দিয়েছিল মালদাবাসীর মনে।এক অদ্ভুত পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছিলো জেলা জুড়ে।কিন্তু,এই সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেনি মালদা জেলার মানুষ।জেলার শিক্ষিত ব্যক্তিরা ছুটে যান কলকাতায়।১৫ ই আগস্ট ভারত স্বাধীন হয়ে গিয়েছে।সারা দেশে যখন উল্লাস তখন মালদার আকাশে উড়ছে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা।

১৭ আগস্ট রাতে রেডিওতে ঘোষণা করা হয় তৎকালীন মালদা জেলার ১৬ টি থানার মধ্যে পাঁচটি থানা অর্থাৎ নাচোল, ভোলাহাট, গোমেস্তাপুর, শিবগঞ্জ ও নবাবগঞ্জ থানাকে পূর্ব পাকিস্তানে রাখা হচ্ছে। বাকি ১১ টি থানাকে স্বাধীন ভারতের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।১৮ ই আগস্ট পাকিস্তানের পতাকা নামিয়ে মালদার আকাশে তোলা হয় স্বাধীন ভারতের তেরঙ্গা।এই ভাবেই নতুন করে ১৮ ই আগস্ট স্বাধীনতা লাভ করে মালদা জেলা।