ঘরেই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু মটন কষা আর রুটি , রইল রেসিপি !

0

সমাচার ডেস্কঃ- মটন পছন্দ নয় এমন খুবই কম জনকেই দেখা যায় । এবার তা যদি হয় কষা সঙ্গে রুটি । এটা জন্য বাইরে যাবার দরকার নেই ঘরেই বানিয়ে ফেলুন মটন কষা । কিভাবে রান্না করবেন এবং কি কি উপকরণ লাগবে দেখে নেওয়া যাক

কি কি লাগবে :-

মটন : ৫০০ গ্রাম ,

পেঁয়াজ কুঁচি : ১ কাপ , 

টমাটো কুঁচি , 

আদা-রসুন বাটা : ১ চামচ, 

টক দই : ২ চামচ

ধনে গুড়ো : ১/২ চা চামচ, 

জিরে গুড়ো : ১/২ চা চামচ,

 লাল মরিচ গুড়ো : ১ চা চামচ,

 হলুদ গুড়ো : ১ চা চামচ,

 গরম মশালা গুড়ো : ১/২ চা চামচ,

এলাচ : ৪ টি, 

লবঙ্গ : ৫ টি, 

তেজ পাতা ১ টি,

 দারচিনি এক টুকরো,

 কাঁচা মরিচ : ৪ টি, 

সরিষের তেল : ৪ টেবিল চামচ,

 লবণ স্বাদমতো, 

জল পরিমাণমতো।

 রান্নার প্রণালী :

একটি প্রেসার কুকারে তেল দিয়ে গরম হলে তাতে এলাচ, লবঙ্গ, তেজ পাতা আর দারচিনি দিয়ে একটু ভেজে নিন। এবার পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে হালকা বাদামী করে ভেজে আদা-রসুন বাটা যোগ করে ভালো করে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে।

এবার মশালাতে পরিষ্কার করে রাখা মটন আর পরিমাণমতো লবণ দিয়ে নাড়াচাড়া করে মিনিট তিনেক কষিয়ে নিন।

 

তারপরে একে একে ধনে গুড়ো, জিরে গুড়ো, লাল মরিচ গুড়ো ও হলুদ গুড়ো দিয়ে ভালো করে মটনের সঙ্গে মিশিয়ে দিয়ে আর ২ মিনিট কষাতে থাকুন। মনে রাখবেন গুড়ো মশালা গুলে দেবার সময় সামান্য পরিমাণ জল দিয়ে দেবেন কারন মশালা পুরে যেতে পারে।

মিনিট দু’য়েক পরে কুচিয়ে রাখা টমাটো দিয়ে কষাতে থাকুন টমাটো গুলো নরম হয়ে যাওয়া পর্যন্ত।

এবারে ফ্যাটিয়ে রাখা টক দই দিয়ে দিন। টক দই যোগ করার আগে আঁচ কমিয়ে দেবেন না হলে দই কেটে যেতে পারে।

যখন মশলা থেকে তেল ছাড়তে শুরু করবে তখন পরিমানমতো জল দিয়ে ঢাকনা লাগিয়ে দিন। ঢাকনা দেবার আগে লবণটা দেখে নিতে হবে।

৫-৬ টা সিটি পড়লে ঢাকনাটা খুলে দিন। এবার গরম মশলা দিয়ে নাড়তে থাকুন। গ্রেভি আপনার পছন্দ মতো রেখে নামিয়ে নিন। নামানোর ২ মিনিট আগে কাঁচা মরিচ দিয়ে দিবেন। এবারে ভাত বা রুটির সঙ্গে গরম গরম পরিবেষণ করুন।