ক্ষতির খতিয়ানঃ হাতে ম্যাপ, ডান পাশে প্রধানমন্ত্রী, বা পাশে ধনকর! চলছে বৈঠক; চমকের অপেক্ষায় বাংলা

0

সমাচার ডেস্কঃ- একদিকে করোনার দাপট আর আম্ফান প্রকোপ অন্যদিকে চলছে একগুচ্ছ প্রকল্পের দাবি। যে প্রকল্পগুলোর না হলে কোন মতেই আম্ফান মোকাবেলা করা যাবে না বলে দাবি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। যার জন্য একসঙ্গে সফর করলেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ও রাজ্যপালের সঙ্গে। এই পরিস্থিতির মধ্যে কিভাবে বাঁচানো যায় তার জন্য সমস্ত রাজনীতি ভুলে রাজ্য দেশের প্রধান প্রধান প্রশাসক একসাথে এক মঞ্চে। অনেকটা সাহস যোগাবে বাংলাকে এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের বহু অংশ। কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে যে এই সাহায্য কি সরাসরি একাউন্টে পাঠানো হবে নাকি রাজ্যের মাধ্যমে তা গরিব মানুষের কাছে। এবং বিধ্বস্ত মানুষের কাছে পৌঁছাবে তা নিয়ে এখন বড় প্রশ্ন।

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার সকালেই আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে বলা হয়েছিল, ঘূর্ণঝড় উমফান সুন্দরবনে আছড়ে পড়লেও তার নিশানা হতে পারে কলকাতাও। শহরের উপর দিয়ে সর্বোচ্চ ১৩০ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড় বয়ে যাবে। তার ফলে কলকাতা তছনছ হতে পারে। কারণ, তাতে গাছ, বিজ্ঞাপনের হোর্ডিং, বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আর সেই আশঙ্কা সত্যি করেই একের পর এক হয় ক্ষতির খতিয়ান উঠে আসে হাতে। যা মেটানোর জন্য এখন হাতে হাত দিয়ে কাজ করবা দরকার প্রত্যেক রাজনৈতিক দলকে। এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের সিংহভাগ অংশ