মালদা জেলা পরিষদের মেন্টর পদ খোয়ালেন কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী

0

হক জাফর ইমাম, মালদা: সূত্রের খবর, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই বুধবার ইংরেজবাজার পৌরসভা তৃণমূলের পুরপ্রধান নীহাররঞ্জন ঘোষের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন দলের ১৫ জন কাউন্সিলর। এরই জেরে মালদা জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীকে। অভিযোগ, যে কাউন্সিলররা এই অনাস্থা এনেছেন তাঁরা প্রত্যেকেই কৃষ্ণেন্দুপন্থী। এ নিয়ে বুধবার থেকে কম জলঘোলা হয়নি। সূত্রের খবর, এরইমধ্যে আজ বৃহস্পতিবার দল সিদ্ধান্ত নেয় কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ আর জেলা পরিষদের ‘মেন্টর’ পদে থাকছেন না। যদিও কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীর দাবি, তিনি নিজেই পদ ছেড়েছেন।

নীহাররঞ্জন ঘোষ পুরপ্রধান হওয়ার আগে এই দায়িত্ব সামলাতেন কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরীই। বছর দুই আগে তাঁকে সরিয়ে সে পদে বসেন নিহার রঞ্জন ঘোষ। সেই সময় নীহাররঞ্জন ঘোষের অনুগামীরাই কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরীর বিরুদ্ধে অনাস্থা ডেকেছিলেন। বুধবার ঠিক তার উল্টোটা হয়। মালদা ইংরেজবাজার পুরসভায় ২৯টি ওয়ার্ড। ২৪টি তৃণমূলের দখলে। এরইমধ্যে ১৫টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বুধবার বর্তমান পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা আনেন। লোকসভা ভোটের পর উত্তরবঙ্গে তৃণমূলের যে ছবি উঠে এসেছে তা এমনিতেই দলের চিন্তার কারণ। সূত্রের খবর, এরমধ্যে এ ধরনের দলীয় কোন্দল মোটেই বরদাস্ত করতে রাজি নয় দল। তাই এই কড়া পদক্ষেপ বলে মনে করছে দলের একাংশ।