নতজানু ড্রাগন; ফুঁসছে ভারতের দেশাত্মবোধ; চীনা দ্রব্য বর্জনের পর এবার রেস্তোরাঁয় চীনা খাদ্য বর্জন; কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর হুংকার

0

সমাচার ডেস্কঃ- বিভিন্ন প্রান্তে চিনা দ্রব্য বর্জনের জন্য উঠছে গর্জন। আর তার মধ্যেই এবার চীনা খাবার কে বর্জন করবার জন্য উঠল আওয়াজ।দেশের নানা প্রান্তে চিনের পতাকা পোড়ানো হয়। চিনের রাষ্ট্রপ্রধান শি জিনপিং-এর কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়। উত্তরপ্রদেশে এক প্রাক্তন বিধায়ক জিনপিং-এর ছবিতে কুঠার দিয়ে আঘাত করেন। পরে তাঁর সমর্থকরা ছবিটি পুড়িয়ে ফেলেন। এসবের মধ্যেই চাইনিজ ফুড বয়কটের ডাক উঠল। ভারতীয় সেনারা যেভাবে শহীদ হয়েছে তার বদলা নেবার জন্য এখন ফুটিছে ভারত ড্রাগনের দেশ ইতিমধ্যেই সমঝোতার বার্তা দিয়েছে।

টুইটে রামদাস বলেছিলেন, “চিন বিশ্বাসঘাতক দেশ। ভারতে চিনের সব সামগ্রী বয়কট করা চাই। দেশের সব চাইনিজ ফুডের দোকানও বন্ধ করা দরকার।” এবার তিনি বললেন, দেশের মানুষেরও উচিত যে কোনও রকম চিনা খাবার বয়কট করা।

একদিকে করোনার প্রভাব অন্যদিকে চীন-ভারতের সম্পর্কে উষ্ণতার পারদ ক্রমেই বাড়ছে।
একই সঙ্গে চিনা খাবার পরিবেশন করে এমন হোটেল, রেস্তোরাঁও বন্ধ করে দিতে হবে। এমনই দাবি তুললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামদাস আতাওয়ালে।
সামাজিক ন্যায় ও সশক্তিকরণ দফতরের প্রতিমন্ত্রী।