আকাশ কাপাতে ইজরায়েলি ‘ফ্যালকন’ দ্রুত আসছে ভারতে, বেইজিংকে লাল সর্তকতা ভারতের

0

সমাচার ডেস্ক: চীন সাগর থেকে ভারত মহাসাগর এখন যুদ্ধের পারদ প্রায় প্রত্যেক দিকেই তৈরি হয়ে রেখেছে । এই পরিস্থিতিতে বোঝানোর জন্য যদি একটু ফ্ল্যাশব্যাকে যাওয়া যায় তবে চীনের বাড়বাড়ন্ত একনায়কতন্ত্র বিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার মতো গুরুতর অভিযোগ জিনপিংয়ের বিরুদ্ধে। আর তাকে ঘিরেই যত গোল বেধেছে একাধিক রাষ্ট্রে। ভারতের লাদাখ সীমান্ত সমস্যা আর সেখানে সেনা মোতায়েন করা রাফাল যুদ্ধবিমান কে নজরদারিতে নিয়ে আসা একাধিক প্রক্রিয়া চালিয়েছে ভারত।

আর এবার আরও একধাপ এগিয়ে চলছে আত্মনির্ভর ভারত। ইজরায়েল থেকে আরও দু’টি ফ্যালকন ‘এয়ারবোর্ন আর্লি ওয়ার্নিং অ্যান্ড কন্ট্রোল সিস্টেম’ (অ্যাওয়াকস)  কেনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এই সিদ্ধান্ত যে বর্তমান পরিস্থিতিকে সামনে রেখে নেওয়া হয়েছে তা স্বরাষ্ট্র দপ্তর সূত্রে খবর। কারণ বেজিং কে বার্তা দিতে ভারত যে আরও শক্তিশালী ভূমিকা প্রদর্শন করবে তা বলাই বাহুল্য।

চলতি সপ্তাহেই নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির (সিসিএস) বৈঠকে এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় অনুমোদন মিলতে পারে বলে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক সূত্রের খবর।তবে এখানেই থেমে থাকা নয় আরো কিছু অস্ত্রের জন্য ভারত হয়তো মুখিয়ে রয়েছে নিজের অস্ত্রভাণ্ডার আরো প্রভাবশালী করবার জন্য।

আরও কিছু প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনার ছাড়পত্র দিতে পারে বলে খবর। মোট অঙ্ক হতে পারে প্রায় ২০০ কোটি ডলার (প্রায় ১৪,৭৬৭ কোটি টাকা)। তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণা করেছে এদেশের আত্মরক্ষার স্বার্থে ভারতরে কোনভাবেই হালকাভাবে নেবেনা। এর মধ্যে ইজরায়েলি নজরদারি ব্যবস্থার জন্য আনুমানিক খরচ ১০০ কোটি ডলারেরও (প্রায় ৭,৩৮৩ কোটি টাকা) বেশি।