LAC তে উত্তেজনা কমাতে পাঁচটি বিষয়ে একমত হল ভারত ও চিন!

0

সমাচার ডেস্ক:ভারত ও চিনের বিদেশমন্ত্রক স্তরের বৈঠক,লাদাক সীমান্তে উত্তেজনা নিয়ে কোনো সঠিক সমাধান সূত্র মেলেনি বলে জানা যায়।তবে, দুই দেশ এদিন ৫ দফার একটি পরিকল্পনায় ঐক্যমত হয়েছে। আগামী দিনে এই পাঁচটি বিষয় মেনে চলার অঙ্গীকারও করেছে ভারত ও চিন।

ভারত ও চিন সীমান্ত যুদ্ধের আবহেই গতকাল মস্কোতে ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর এবং চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ওয়াই জরুরি বৈঠকে বসেন। দিন তিনেক আগে এই সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন (‌Shanghai Cooperation Organisation)‌ সামিটেই দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রক স্তরে বৈঠক হয়েছিল,সেখানে কোনো রকম সমাধান মেলেনি।

পুনরায়, বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসে ভারত ও চিন।রাশিয়াও চাইছিল দুই দেশের সমস্যার একটা সমাধানসূত্র বের হোক। কারণ রাশিয়া চায় না, ভারত ও চিনের এই সমস্যার জন্য কোনওভাবে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন ভেঙে যাক।

বৃহস্পতিবার বসা বৈঠকে ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর চিনা বিদেশমন্ত্রীকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, সীমান্তের বর্তমান উত্তেজনার জন্য দায়ী চিনা সেনার (PLA) আগ্রাসী এবং প্ররোচনামূলক আচরণ। জয়শংকর বলেন, চিনা সেনার এই আচরণ দুই দেশের মধ্যেকার যাবতীয় চুক্তি এবং প্রটোকলের পরিপন্থী। সীমান্তে চিনের যে বিশাল সেনা মোতায়েন আছে, তা নিয়েও আপত্তি তোলেন বিদেশমন্ত্রী। সাফ জানিয়ে দেন,”সীমান্তে চিনের বিশাল সেনা আসলে ১৯৯৩ এবং ১৯৯৬ সালে হওয়া দ্বিপাক্ষিক চুক্তির অসম্মান। চিনারা এই বিপুল সেনা মোতায়েনের উপযুক্ত কোনও কারণ দেখাতে পারেনি।”

দুটি দেশের মধ্যে কোনো পূর্ণ সমাধান না মেলায় একটি পাঁচ দফার পরিকল্পনায় সম্মত হয়েছে। এই পাঁচ দফার পরিকল্পনার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, কোনওভাবেই মতপার্থক্যকে বিবাদে পরিণত না করা। সমস্ত দ্বিপাক্ষিক চুক্তি মেনে চলা। সীমান্তে টহলদারির সময় সমস্ত প্রোটকল মেনে চলা এবং আলোচনা চালিয়ে যাওয়া। সীমান্তে শান্তি বজায় রাখা, এবং সমস্যা বাড়তে পারে এমন কোনও পদক্ষেপ না করা। এই পাঁচ পয়েন্টে সম্মত হলেও এদিনের বৈঠকে সেনা প্রত্যাহার নিয়ে কোনও রফাসূত্র মেলেনি।