‘৩ মাস ধরে পাচ্ছি না বেতন, বাচ্চাদেরও স্কুলের ফি দেওয়ার মতো টাকা নেই’,টুইট পাকিস্তানি দূতাবাসের

0

সমাচার ডেস্ক: দিন দিন পাকিস্তান এমন দারিদ্র্যের দিকে যাচ্ছে যে বিদেশে তার দূতাবাসের খরচ বহন করতে পারছে না। সার্বিয়ার পাকিস্তানি দূতাবাস (Pakistan Embassy In Serbia) প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে টুইট করে লিখেছিলেন,যে দূতাবাসে কর্মরত ব্যক্তিরা ৩ মাস ধরে বেতন পাচ্ছে না।দূতাবাসের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে করা এক টুইট বার্তায় লেখা হয়েছে, দূতাবাসে কর্মরত ব্যক্তিদের কাছে এখন শিশুদের স্কুলের ফি (School Fees) দেওয়ার মতো টাকা নেই।

সেই টুইটে আরও লেখা রয়েছে,”ইমরান খান, আগের সব মুদ্রাস্ফীতির রেকর্ড ভেঙে, আপনি কতদিন আশা করতে পারেন আমাদের সরকারি কর্মকর্তারা চুপ করে থাকবে এবং গত ৩ মাস বেতন ছাড়া আপনার জন্য কাজ করবে। ফি না দেওয়ায় আমাদের সন্তানদের স্কুল থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। এটাই কি নতুন পাকিস্তান? অন্য আরেকটি টুইটে বলা হয়েছে, ‘আমরা দুঃখিত ইমরান খান, আমাদের আর কোনো বিকল্প নেই।’

আপনাদের জানিয়ে রাখি, দূতাবাসের এই টুইটের সাথে একটি গানের ভিডিও শেয়ার করেছে যা “আর চিন্তা করতে হবে না” রিতিমত ভিডিও টি ভাইরাল, বিশ্বের কাছে পাকিস্তানের অবস্থা কেমন তা পরিস্কার। অনেক আগেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানিয়েছিলেন যে তাদের দেশ চালানোর মত টাকা নেই , তাই অন্য দেশের কাছে থেকে ঋণ নিতে হচ্ছে।