‘মেয়েদের স্বপ্ন দেখা উচিত’ ১০০ শতাংশ নম্বর পেয়ে বলেছেন জেইই মেইন topper তনুজা

0

সমাচার ডেস্ক: ভারত বর্ষ ডিজিটাল হলেও আমাদের সমাজে মেয়েদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে অনেক বিধি নিষেধ আছে আর্চি বিধি নিষেধ এর তোয়াক্কা না করে ২০২০ সালের জেইই মেইন পরীক্ষায় বসেন ১৭ বছরের তনুজা চাক্কু।

তনুজা চাক্কু ছোটো থেকেই মেধাবী ছিলেন তার স্বপ্ন ছিল বোম্বে আইআইটি কলেজে পড়াশোনা করার তার পছন্দের বিষয় ছিল অংক ও কম্পিউটার সাইন্স।

২০২০ সালের জেইই মেইন পরীক্ষায় ১০০ শতাংশ নম্বর পাওয়া পড়ুয়াদের তালিকায় একমাত্র ছাত্রী। প্রথমবার পরীক্ষায় ৯৯.৯৯ শতাংশ নম্বর পেয়েও ফের পরীক্ষায় বসেছিলেন তনুজা। সাক্ষাৎকারে বললেন, ‘মেয়েদের লক্ষ্য হওয়া উচিত ১০০ শতাংশ নম্বর পাওয়া।’

তনুজা বাবা হলেন একজন সরকারি কর্মজীবী তনুজা এর আগেও যেই মেইন পরীক্ষায় বসে ছিলেন তার প্রাপ্ত নম্বর ছিল 99. 99 শতাংশ এই নম্বর পেয়ে তিনি খুশি ছিলেন না ,তাই ২০২০ সালে লকডাউনের তোয়াক্কা না করে আবারো বসে যেই মেন পরীক্ষা দিতে।১০০ শতাংশ নম্বর পাওয়া ২৪ ছাত্রছাত্রীর নামের তালিকার মধ্যে মহিলা হিসাবে একা তনুজারই নাম রয়েছে।

সাফল্য পেয়ে তনুজা বলেছেন ? একটি সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলছেন, ‘আমার বিশ্বাস সব মেয়েই জেইই মেইন পরীক্ষায় সাফল্য পেতে পারে। তবে মেয়েদের পড়াশোনার জন্য সামাজিক অনেক প্রতিবন্ধকতা থাকে, যার সম্মুখীন ছেলেদের হতে হয় না। মেয়েদেরও ১০০ শতাংশ নম্বর পাওয়ার স্বপ্ন দেখা উচিত। আর এটা শেষ নয়, শুরু।’

তনুজা আরও বলছেন, ‘লকডাউনটা একটা ছুটির মত। আমি আগে ৮-৯ ঘণ্টা পড়ার সময় পেতাম। কিন্তু আমার লক্ষ্য ছিল দিনে ১২ ঘণ্টা পড়া। বারবার নমুনা প্রশ্নপত্রগুলিকে অনুশীলন করতাম।’