নিলামে ২ কোটি ৮৮ লক্ষ টাকায় বিক্রি হলো গান্ধীজির চশমা !

0

সমাচার ডেস্কঃ- নিলামে অংশগ্রহণ কারি গান্ধীজির চশমা বিক্রি হয়ে গেল । মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীর এই চশমা যুক্তরাজ্যের একটি নিলাম ঘরে ৩ লাখ ৪০ হাজার মার্কিন ডলার ( ২ কোটি ৮৮ লাখ ৩৬ হাজার টাকায়) বিক্রি হয়েছে।

ইস্ট ব্রিস্টল অকশন চশমা বিক্রির করা জানিয়েছেন , লেখা হয়েছে ,   ‘মাত্র চার সপ্তাহ আগেই চশমাটি আমরা আমাদের ডাকবাক্সে পেয়েছিলাম। এক ভদ্রলোক সেটি ওখানে রেখে গিয়েছিলেন; চশমাটি গান্ধী নিজে ওই ভদ্রলোকের এক আংকেলকে দিয়েছিলেন’।

অকশন হাউস জানিয়েছেন , অহিংস আন্দোলনের পুরোধা মহাত্মা গান্ধী ওই চশমা ১৯২০ কিংবা ১৯৩০-এর দশকে ব্যবহার করতেন , যখন তিনি দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামে চাকরি করতেন , পরে তা উপহার স্বরূপ এক ব্যক্তিকে দান করে দেন । এই উপহার চশমা নিলামে তুলে অবিশ্বাস্য ফল এসেছে , অবিশ্বাস্য দামে এটি বিক্রি হয়েছে । 

 

অকশন হাউস মনে করেছিলে , নিলামে চশমাটির দাম ১৯ হাজার ৬৩৪ ডলার (১৬ লাখ ৬৫ হাজার টাকার) মতো উঠবে। এ মাসের শুরুতে নিলামকারী অ্যান্ড্রু স্টো বলেছিলেন, যে ভদ্রলোক চশমাটি তাদের দিয়ে গেছেন, তিনি বলেছিলেন, ‘কাজে না লাগলে ফেলে দিয়েন!’

যারা এটির দাম ১৯ হাজার ৬৩৪ ডলারের মতো উঠবে বলে আশা করেছিলেন, ৩ লাখ ৪০ হাজার ডলারে বিক্রি হওয়ার খবরে তাদের চোখ নিশ্চয়ই কপালে উঠে গেছে!

জানা গেছে, এই চশমাটি ইংল্যান্ডের এক বয়স্ক ব্যক্তির কাছ থেকে মিলেছে। তার বাবা জানিয়েছিলেন, এই চশমাটি তার কাকা ১৯১০ থেকে ১৯৩০ সালের মধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকায় ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামের হয়ে কাজ করার সময় উপহার হিসেবে পেয়েছিলেন।

‘এই ব্যক্তি নিশ্চয়ই ব্রিটিশ পেট্রোলিয়ামের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় কাজ করতেন। সেখানেই তিনি এই চশমাটি উপহার পান। তবে আমার মনে এই চশমাটি তার প্রথম জীবনেরই চশমা।’

কিন্তু কীভাবে গান্ধীর ব্যবহৃত চশমা অন্য একজনের কাছে এলো? আসলে গান্ধীজি প্রায়ই তার পুরনো বা অপ্রয়োজনীয় চশমা সেই সব মানুষকে দান করতেন যাদের সেটির প্রয়োজন আছে অথবা কোনও না কোনও সময়ে গান্ধীকে সাহায্য করেছেন। সেভাবেই হয়তো ওই ব্যক্তিকেও তিনি চশমাটি দান