সাবওয়ের খাবারের উপর ছত্রাক, KMC অভিযোগ দায়ের করলেন মিমি চক্রবর্তী

0

সমাচার ডেস্ক:টলিউড অভিনেত্রী মিমি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে সবসময় এগিয়ে থাকে,অন্যায় আর অবিচার মিমি কোনোদিন মেনে নিতে পারেনি ।মিমি ছোটো থেকেই সাহসী প্রকৃতির মেয়ে,মিমি শিখেছেন ক্যারাটেও।

মিমি অভিযোগ করেছেন, গত ১৬ সেপ্টেম্বর তিনি নিউটাউনের কাছে ইকো স্পেসে শ্যুটিং করতে গিয়েছিলেন। সেদিন ইকো-স্পেসের সাবওয়ে আউটলেট থেকে একটি সাব অর্ডার করেছিলেন। কিন্তু খাবার হাতে পেয়ে আঁতকে ওঠেন মিমি। যে সাবমেরিন স্যান্ডউইচটি তাঁকে দেওয়া হয়েছিল সেই স্যান্ডউইচের উপর ছত্রাক পড়ে গিয়েছে। প্রমাণ স্বরূপ কিছু ছবিও তুলে রাখেন মিমি।

মিমি শুধু ছবি পোস্ট করেই থামেননি,KMC-এর খাদ্য বিভাগেও অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। সেই অভিযোগ পত্রটিও বিলের সঙ্গে ট্যুইটারে জুড়ে দিয়েছেন,

মিমি তাঁর ট্যুইটে লেখেন, ‘আমি সবার উদ্দেশে বলছি, যাঁরা সাবওয়ে থেকে খাবার অর্ডার করেন, এবার কিছু অর্ডার করার আগে দুবার ভাববেন। আমি ১৬ সেপ্টেম্বর শ্যুটিং করতে গিয়ে ইকো স্পেসের সাবওয়ে থেকে খাবার অর্ডার করেছিলাম। দেখুন কীরকম খাবার দেওয়া হয়েছে। আমি ভেবেছিলাম ইকো স্পেসের এই আউটলেটটি নিশ্চয় স্বাস্থ্যকর খাবার দেবে’।

এর পরের ট্যুইটে মিমি সাবওয়ের দিকে আঙুল তুলে লেখেন,’কতদিন ধরে আপনারা এরকম বাসি খাবার গ্রাহকদের দিচ্ছেন? আপনারা গ্রাহকদের স্বাস্থ্যের কথা ভাবেন না, এদিকে তাঁদের জন্যই আপনাদের এখানে সাম্রাজ্য বিস্তার হচ্ছে’।

মিমি এর আগেও অনেক অন্যায় এর প্রতিবাদ করেছেন, কিছুদিন রাতের কলকাতায় জিম থেকে ফেরার পথে এক ট্যাক্সিচালক হেনস্থা করে তাঁকে। তাঁর দিতে তাকিয়ে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করেন। এরপর বালিগঞ্জ ফাঁড়ি আর গড়িয়াহাট ক্রসিংয়ের মাঝে নিজের গাড়ি দাঁড় করিয়ে সেই ট্যাক্সি চালককেও টেনে নামান। শুক্রবার আলিপুর আদালতে জবানবন্দিও দিয়ে এসেছেন। একজন সুনাগরিক হিসেবে যে যে কর্তব্য পালন করা উচিত ঠিক তাই করেছেন মিমি চক্রবর্তী।