আইপিএলে নতুন রুপে দেখা যাবে সৌরভ গাঙ্গুলিকে

জন্মলগ্ন থেকেই আইপিএলের সঙ্গে রয়েছেন তিনি। শুরুতে  কলকাতা নাইট রাইডার্সের অধিনায়ক। এরপর সেখান থেকে চলে যান পুনে ওয়ারিয়র্সে। ২০১২ সালে ছেড়ে দেন আইপিএল। তখন থেকেই হয়ে যান পুরো দস্তুর ক্রিকেট সংগঠক। এখন তো দায়িত্ব পালন করছেন ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) সভাপতি হিসেবে। মাঝে-মধ্যে দেখা যায়, ধারাভাষ্যকারের মাইক হাতে কথা বলছেন কোনো ম্যাচে।

কিন্তু এবার আইপিএলে নতুন রুপে দেখা যাবে কলকাতার মহারাজকে। নতুন নামে এবারের আইপিএলে খেলতে আসা দিল্লি ক্যাপিটালসের উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই অধিনায়ককে।

মালিকানা বদল হওয়ার কারণে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের নাম বদলে গেছে এবার। নতুন নাম হয়েছে দিল্লি ক্যাপিটালস। নতুন রুপে আসা দলটির উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হলো সৌরভ গাঙ্গুলিকে। তাকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয়ার অর্থ আইপিএলে দিল্লির ডাগ আউটে এবার দেখা যাবে পন্টিং-সৌরভ জুটিকে।

নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর সৌরভ গাঙ্গুলি বলেন, ‘নিজেকে খুব সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে যে দিল্লি ক্যাপিটালসের বোর্ডে আমাকে সম্মান দেয়া হয়েছে।’

পরক্ষণে তিনি আবার বলেন, ‘যখন জানলাম জিন্দালস এবং জেএসডব্লিউ গ্রুপ এই ফ্রাঞ্জাইজিটির মালিকানায়, তখনই আমি দারুণ রোমাঞ্চিত, তাদের নতুন ক্রীড়া প্রজেক্টের অংশীদার হতে পারলাম বলে। আমি সত্যিই দলটির খেলোয়াড় এবং সাপোর্ট স্টাফদের সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে আছি।’

দিল্লির ফ্রাঞ্চাইজিটি এখনও পর্যন্ত আইপিএলের কোনো শিরোপা জিততে পারেনি। দিল্লি ক্যাপিটালস চেয়ারম্যান পার্থ জিন্দাল বলেন, ‘সৌরভ গাঙ্গুলি হচ্ছেন বর্তমান সময়ে ক্রিকেটে সবচেয়ে বিচক্ষণ এবং কৌশলী একজন ক্রিকেট ব্যাক্তিত্ব।

আজকের ভারতীয় ক্রিকেটে যে সাফল্য, যে আক্রমণাত্মক মানসিকতা, ইতিবাচকতা এবং শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়াই করার মানসিকতা- এসব এনেছিলেন তো সৌরভ গাঙ্গুলিই। আমরা আশা করি, দিল্লি ক্যাপিটালসেও এসব টেনে আনতে সক্ষম হবেন তিনি। আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসকে তিনি নিজের দল হিসেবে বাছাই করে নিয়েছেন বলে আমরা নিজেদেরকেও সম্মানিত মনে করছি।’