স্টাফ রিপোর্টারঃ- ২০ বিঘা জমি নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে সংঘর্ষে আহত দুই পক্ষের পাঁচজন। ঘটনাটি ঘটেছে চোপড়া থানার হাপতিয়াগঞ্জ এলাকায়। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। আহতদের চোপড়া দলুয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ও ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে।

স্থানীয়সূত্রে জানা গিয়েছে, চোপড়া থানার হাপতিয়াগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা রেজুয়ান আহম্মেদের পারিবারিক ২০ বিঘা জমি ছিল। ওই জমি রেজুয়ান আহম্মেদ অন্য একজনের কাছে বিক্রি করে। রেজুয়ান আহম্মেদের বিক্রি করা জমির টাকার থেকে হাসান আলি, সরিফুল হক ও নাজিমুল ইসলাম এরা কমিশন চাই বলে অভিযোগ। আজ সকালে রেজুয়ান বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে ছিল। হঠাৎই হাসান আলি, সরিফুল হক ও নাজিমুল ইসলাম এসে তাকে উদ্যেশ্য করে বোম মারে। রেজুয়ান সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাকে লক্ষ্য করে গুলিও চালাই বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে।

বোমের আঘাতে আহত হয় পাঁচ জন। তড়িঘড়ি আহতদের দলুয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেল রেজুয়ান আহম্মেদ অবস্থা খারাপ দেখে চিকিৎসকেরা তাকে ইসলামুর মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এই ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে চোপড়া থানার পুলিশ। বর্তমানে এলাকায় পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে।