সরকারি চাকুরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারনা

স্টাফ রিপোর্টারঃ-সরকারি চাকুরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রতারনা করার অভিযোগে এক ব্যাক্তিকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ থানার ২ নং কমলাবাড়ি গ্রামপঞ্চায়েতের সতীপুকুর গ্রামে।

ধৃত ব্যাক্তির নাম দেবাশীষ নাগ। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে রায়গঞ্জের সতীপুকুর গ্রামে। প্রতারিত বেকার যুবক যুবতীরা অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির পাশাপাশি তাদের টাকা উদ্ধারের দাবি জানিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

রায়গঞ্জ শহরের অনতিদূরেই সতীপুকুর গ্রামে নিজের টাকা খরচ করে একটি শ্মশানঘাট ও শিব কালী মন্দির তৈরি করেছেন দেবাশীষ নাগ নামে এক ব্যাক্তি। সেই মন্দিরেই তার থাকা খাওয়া চলত। জানা গিয়েছে মাঝেমধ্যে শিলিগুড়িতেও থাকতো দেবাশীষ।

ধীরে ধীরে মন্দিরে ভক্ত সমাগমের পাশাপাশি বেকার যুবক যুবতীরা চাকুরির আশায় দেবাশীষের তৈরি মন্দিরে আসাযাওয়া করতে থাকে। বেকার যুবকদের অসহায়তার সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন সময়ে তাদের সরকারি চাকুরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে প্রায় ত্রিশ থেকে চল্লিশ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় বলে অভিযোগ। প্রতারিতদের চাকুরি তো দূরের কথা তাদের একটি টাকাও ফেরত দেয়নি অভিযুক্ত দেবাশীষ নাগ। টাকা পয়সা হাতিয়ে নিয়ে সে ফেরার থাকে। দীর্ঘদিন বাদে আজ তাকে আবার সতীপুকুর শিব কালী মন্দিরে দেখতে পান স্থানীয় মানুষজন।

তাকে ঘরের ভেতর আটকে রেখে খবর দেওয়া হয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে। পুলিশ এসে তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।যদিও অভিযুক্ত দেবাশীষ নাগ জানিয়েছেন, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তোলা হয়েছে। কাউকে তার চাকুরি দেওয়ার কোনও সুযোগ বা হাত নেই। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।