শিক্ষা স্বাস্থ্যে বড় চমকঃ মিড ডে মিল এর আগে সকালে বিদ্যালয়ে ব্রেকফাস্ট ; মোদি সরকারের প্রশংসনীয় পদক্ষেপ

0

সমাচার ডেস্কঃ- মোদি জমানায় একদিকে যেমন দেশের সুরক্ষা ব্যবস্থা হয়েছে চমকপ্রদ যেখানে গোটা বিশ্ব ভারতকে এখন সম্মান দিতে বাধ্য তেমনি প্রতিবেশী কিছু দেশ ভারতের সাথে পা লাগিয়ে ঝগরা করবার আগে ভাবছে। আসলে এসব কোনো বানানো গল্প নয়। মোদি জামানায় এমনটাই উঠে এসেছে মত বিশেষজ্ঞ মহলের সিংহভাগের। কিন্তু বাকি ছিল শিক্ষানীতি।

 

যেখানে এখন কেন্দ্র আরোপ করেছে নতুন কিছু পদ্ধতি। বিতর্ক থাকলেও প্রশংসার সবকিছুকে ছাপিয়ে গিয়েছে। গত মঙ্গলবার কেন্দ্র যে নয়া শিক্ষানীতির ( New Education Policy 2020 বা NEP 2020 ) ঘোষণা করেছে, তাতে জানানো হয়েছে, অপুষ্টিতে ভুগলে বা অসুস্থ থাকলে পড়ুয়ারা ভালোভাবে শিখতে পারে না। সেজন্য পুষ্টিকর ও স্বাস্থ্যকর খাদ্যের মাধ্যমে পড়ুয়াদের পুষ্টি এবং স্বাস্থ্যের ( মানসিক স্বাস্থ্যও ) উপর জোর দিতে হবে। পুরো প্রক্রিয়ার জন্য প্রশিক্ষিত সমাজকর্মী, মনোবিদদের নিয়োগ করা হবে।

 

এসব কিছু নতুন পদ্ধতি থাকলেও যেটা সবচেয়ে বেশি মন কেড়েছে সেটাও দুস্থ গরিব বালকদের জন্য যে মোদি সরকার চিন্তাভাবনা করেছে তা যথেষ্ট প্রশংসার যোগ্য।

 

 

সকালে পুষ্টিকর জলখাবার ( ব্রেকফাস্ট ) খেলে তা পড়ুয়াদের পক্ষে ফলদায়ক হবে। সেজন্য মিড ডে মিলের পাশাপাশি সকালে হালকা ও এনার্জিদায়ক খাবার দেওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। নয়া শিক্ষানীতির নথিতে বলা হয়েছে, ‘খাবারের মান এবং পুষ্টিগত উপাদান নিশ্চিত করতে খাবারের দাম এবং মুদ্রাস্ফীতির সঙ্গে জলখাবারের খরচ যোগ করা হবে।’