“টুকরে টুকরে গ্যাং ও আজাদিস্লোগান” প্রতিবাদ করায় অর্ণব গোস্বামী কে অশালীন আক্রমণ বিমানে!তারপর ক্ষমা চাইলেন!

0

সমাচার ডেস্ক: তিনি ব্যক্তিগত জীবনে সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামী.। রিপাবলিক চ্যানেল এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা । কিন্তু তার বিমানযাত্রা কে কেন্দ্র করে এবার ঘটল এক বিরল ঘটনা। দেশের রাজনীতির আচ পরল তার ব্যক্তিগত জীবনের চলাফেরায়। ঘটনার পর কুণাল টুইট করে বলেন, “বিমানে যাওয়ার সময় আমি অর্ণব গোস্বামীকে দেখি। আমি ওর সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলাম। কিন্তু উনি ফোনে ব্যস্ত ছিলেন।

তাই আমি অপেক্ষা করি। তারপর ওনার সাংবাদিকতা আমার কেমন লাগে সে ব্যাপারে আমি কিছু কথা বলি। কিন্তু উনি আমার সঙ্গে কথা বলতে চাননি। আমাকে মানসিকভাবে অসুস্থ বলেন উনি। তাই আমি ওনার ব্যাপারে কিছু কথা বলি। ওনার কানে হেডফোন ছিল। ওনার শো’তে যেভাবে সবার সঙ্গে কথা বলা হয়, সেভাবেই কথা বলছিলাম আমি। তারপর অবশ্য বিমানকর্মীরা আমাকে বললে আমি নিজের সিটে এসে বসি। আমি প্রত্যেক বিমানকর্মী ও পাইলটের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি। অন্য যাত্রীদের কাছেও ক্ষমা চাইছি। কিন্তু একজনের কাছে নয়।”

এই নিষেধাজ্ঞার পর তাকে নিয়েও কটাক্ষ করেছেন কুণাল কামরা। ইন্ডিগোর টুইটের পর তিনি টুইট করে জানান, “আমাকে ৬ মাসের জন্য সাসপেন্ড করায় ইন্ডিগোকে ধন্যবাদ। এটা খুব দয়ালু একটা সিদ্ধান্ত। আশা করছি মোদীজি এয়ার ইন্ডিয়াকে বরাবরের জন্য বন্ধ করে দেবেন।” একদিকে অর্ণবকে অন্যদিকে দেশের প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ কিন্তু তার কথা অনুযায়ী এমন আক্রমণে প্রয়োজনীয়তা বুঝতে পারছিনা সাধারণ মানুষের অনেকাংশ।

মঙ্গলবার ইন্ডিগোর তরফে টুইট করে একথা জানানো হয়। টুইটে লেখা হয়, “বিমানের মধ্যে অন্য এক যাত্রীর সম্পর্কে অশালীন মন্তব্য করার জন্য কুণাল কামরাকে ৬ মাসের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হচ্ছে। এই ধরনের ব্যবহার কোনও মতেই মেনে নেওয়া যায় না।”