হিন্দু বন্ধুর মরদেহ ধর্মীয় রীতি মেনে কাঁধে নিয়ে রামনামে শ্মশানে নিয়ে গেলেন মুসলিম ব্যক্তি!

0

নিজেদের মধ্যে একতার রুপ দেখাইয়ায় হিন্দু ও মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে , কিন্তু সামনে এলো এক আচমকিত ঘটনা । এক হিন্দু ব্যক্তি কে কাঁধে নিয়ে রামনামে শ্মশানে নিয়ে যাচ্ছে মুসলিম ব্যক্তি । ঘটনাটি আসানসোলের সীতারামপুরের । মুসলিম ব্যক্তির নাম শাহিদ খান । তিনি মৃত বন্ধুর মরদেহ কাঁধে বহন করে রামনাম করতে করতে শ্মশানে নিয়ে যান। দায়িত্ব নিয়ে হিন্দুরীতি মেনে বন্ধু সুরেন্দ্রের সৎকার করলেন এই মুসলিম ব্যক্তি। মৃত্যুর পরে নয়, ক্যানসার আক্রান্ত বন্ধু সুরেন্দ্র ভগবৎ আগরওয়ালকে সাত মাস ধরে নিজের বাড়িতে রেখে চিকিৎসাও করান তিনি।

মৃত ব্যক্তির নাম ভগবৎ আগরওয়াল । মুম্বাইয়ে কাজে এর দরুন নিজেদের মধ্যে বন্ধুর সম্পর্ক তৈরি হয় । এরপর বাড়ি চলে যায় সুরেন্দ্র । হঠাৎ বন্ধু সুরেন্দ্রর অসুস্থের খবার শুনে তার কাছে যান শাহিদ ‌।  সুরেন্দ্রর আত্মীয় বলে কেউ না থাকায় তিনি তার দেখভাল করতে শুরু করেন । তিনি জানতে পারেন সুরেন্দ্র ওরাল ক্যানসারে আক্রান্ত। ডাক্তাররা জানান বেশিদিন তিনি বাঁচবেন না। তাই তিনি তাকে তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। এভাবেই প্রায় ছয় মাস ধরে তার সেবা করেন। এরপর সুরেন্দ্র আগরওয়ালের মৃত্যুর হলে হিন্দুরীতি মেনে তুলসি পাতা, চন্দন, ফুল দিয়ে সাজানো হয় দেহ। নিজের কাঁধে মরদেহ নিয়ে রামনাম করতে করতে তাকে বিদায়গড় শ্মশানে নিয়ে যান শাহিদ। বন্ধুর অন্তিম সংস্কার করেন।