১ টাকার চিকিৎসায় ১০ দিনেই কোভিড-১৯ কে হারিয়ে জয়ী ১০৬ বছরের বৃদ্ধা

0

সমাচার ডেস্ক:ওয়ান রুপি ক্লিনিক’ মাত্র ১ টাকা নেয় রোগীদের কাছ থেকে।শুনতে অবাক লাগছে তো এটাই সত্য।মূলত রেল দুর্ঘটনায় জখম লোকজনের জরুরি ভিত্তিতে চিকিত্সায়, সাধারণ মানুষের সেবায় সেন্ট্রাল রেলওয়ের শহরতলি শাখার বাছাই করা কয়েকটি স্টেশনেই এধরনের ক্লিনিক তৈরি হয়েছে।

Covid-19 পজেটিভ এক ১০৬ বছরের বৃদ্ধা ১০দিনের চিকিৎসাই সুস্থ হয়ে উঠেছেন এই ওয়ান রুপি ক্লিনিক চিকিৎসা ব্যবস্থপনায়।রবিবার ওই বৃদ্ধাকে ডিসচার্জ করা হয়।তিনি সাংবাদিকদের সামনে ডিসচার্জ সার্টিফিকেট তুলে ধরে দেখিয়ে হাসপাতাল ছাড়লেন। মুখে চওড়া হাসি।নার্স-ডাক্তাররা তাঁকে উষ্ণতায় ভরা বিদায় সংবর্ধনা দিলেন।

  পরিবার সূত্রে জানা যায়, মহারাষ্ট্রের ঠাণের ডম্বিভেলির শতবর্ষ পেরনো মহিলার কোভিড-১৯ সংক্রমণ ধরা পড়া, নিশ্চিত হওয়ার পর বয়সের কারণে তাঁকে কোনও হাসপাতাল ভর্তিই নিতে চাইছিল না বলে জানিয়েছেন তাঁর পুত্রবধূ। শেষ পর্যন্ত ১০ দিন আগে তিনি ভর্তি হতে পারেন সাভলারাম ক্রীড়া সংকুলে (স্পোর্টস কমপ্লেক্স) কল্যাণ ডম্বিভেলি পুরসভা স্থাপিত কোভিড-১৯ চিকিত্সা কেন্দ্রে। ডাক্তার, নার্সদের সেবাযত্নে শাশুড়ি সুস্থ হয়ে ওঠায় দারুণ খুশি তিনি। বলছেন, হাসপাতালের মেডিকেল টিমের কাছে আমরা সত্য়িই কৃতজ্ঞ। ওনার সঠিক যত্ন নিয়েছেন ওঁরা, করোনাভাইরাসকে হারাতে ওঁকে সাহায্য করেছেন।

কোভিড-১৯ চিকিত্সাকেন্দ্র পরিচালনা করা ‘ওয়ান রুপি ক্লিনিক’-এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডঃ রাহুল গুলে বৃদ্ধার দারুণ সেবা-যত্ন করায় তাঁর টিমের দারুণ প্রশংসা করে বলেছেন, আমাদের দেখে খুব ভাল লাগছে যে, উনি চিকিত্সায় সফল ভাবে সাড়া দিয়েছেন। ২৭ জুলাই চালু হওয়া হাসপাতালে এখনও পর্যন্ত ১১০০ কোভিড-১৯ রোগীর চিকিত্সা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।