৮৮৫০০ ০৮০০০ এই নম্বরটিই হোয়াটসঅ্যাপে সেভ করুন শীঘ্রই; তারপর দেখুন ফেসবুক ও জিওর প্রথম ধামাকা!

0

সমাচার ডেস্ক: জিও এবং ফেসবুক কর্তা দুজনের মিলনের ফলে শুরু হয়েছে এক মণিকাঞ্চন যোগ। এমনটাই আশা করছে দেশের বাণিজ্যের মহল। এর প্রভাব এই লকডাউন এর মধ্যেও দেখা যাবে বলে আশা প্রকাশ করছে। এর সাথে যুক্ত সমস্ত কর্মী। মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে যাবে খাবার। কিন্তু এই পরিষেবা এখন কিছু এলাকার মধ্যেই সীমিত থাকবে। এর সাথে সাথে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে যাবে এই পরিষেবা। তবে বিষয়টা একটু সময়সাপেক্ষ হলেও মানুষের জরুরি সেবার ক্ষেত্রে খুব উপকারী হবে তা মনে করছে বাজার বিশেষজ্ঞদের একাংশ।

৮৮৫০০ ০৮০০০ এই নম্বরটিই মোবাইল ফোনে সেভ করতে বলছে জিও। গ্রাহকদের কিছুই করতে হবে না। এই নম্বর থেকে গ্রাহকদের কাছে আসবে একটি লিঙ্ক। সেই লিঙ্কের ভ্যালিডিটি ৩০ মিনিট। এই সময়ের মধ্যেই লিঙ্কটি ব্যবহার করতে হবে। লিঙ্কে ক্লিক করলে একটা নতুন ওয়েবপেজ খুলবে। সেখানে গ্রাহককে নাম, ঠিকানা এবং ফোন নম্বর দিতে হবে। সঙ্গেই বিভিন্ন সামগ্রীর ক্যাটালগ। সেখানে দামও উল্লেখ করা থাকবে। প্রয়োজনীয় সামগ্রী সিলেক্ট করে অর্ডার দিতে হবে। তবে এবার এই ব্যবসায় অ্যামাজন ফ্লিপকার্ড অন্যান্যরা কিভাবে এখন লাফিয়ে পড়ে তাও দেখার বিষয়। তবে ছোট ছোট বাণিজ্যিক মহল গুলিকে একসাথে করে বেকারত্ব কিছুটা প্রশমিত করা যাবে বলে মনে করছে অনেকে।

তবে এই বর্তমান ডেলিভারির ক্ষেত্রে একটি নিয়ম প্রযোজ্য রয়েছে।কোন খানে অর্ডার গেল সেটা জানিয়ে দেওয়া হবে গ্রাহককে। সামগ্রী ডেলিভারির জন্য তৈরি হয়ে গেলে গ্রাহকের কাছে ফের আসবে মেসেজ। এবার গিয়ে সংগ্রহ করে নিতে হবে নির্দিষ্ট দোকান বা স্টোর থেকে। এখনই হোম ডেলিভারি চালু হচ্ছে না।