তিন বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষন করার ঘটনায় ২৯ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি কার্যকর ভোর ৪.৩০ মিনিটে

0

সমাচার ডেস্ক: গুজরাতের ধর্ষণের কাণ্ডে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ফাঁসির সাজা শুনিয়েছে।গত কাল সুরাতের আদালতে বিহারের অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করল আদালত। সেদিন সুরাতের অতিরিক্ত দায়রা বিচারক পিএস কালা অভিযুক্তকের মৃত্যু পরোয়ানায় জারি করেন।

 আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি তাকে ফাঁসি কার্যকর করার নির্দেশ দেন আদালত।ভোর ৪.৩০টা নাগাদ সবরমতী জেলে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখর নির্দেশ দেন। ২০১৯ সালের ২৭ ডিসেম্বর গুজরাত হাইকোর্ট পকসো আদালতের এই রায় বহাল রাখে সেদিন।

২০১৮ সালের ১৪ অক্টোবর সুরাত শহরের গোদাদরার হঠাৎ করে নিখোঁজ হয়ে যায় ৩ বছরের একটি শিশু কন্যাকে , তালাবন্ধ ঘর থেকে একদিন পর শিশুকন্যার দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটার ৫ দিন পর বিহারের বক্সার থেকে গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত অনিল যাদবকে ।তালাবন্ধ ঘর অনিল যাদবের ছিল।তার বাড়ি বিহার হলেও শ্রমিকের কাজ করত এসেছিল গুজরাতে।