পাকিস্তানের জেলে কয়েক বছর আগে বন্দি ছিলেন আবদুল গনি বরাদর, আফগানিস্তান দখল করে রাষ্ট্রপতি হওয়ার পথে

0

সমাচার ডেস্ক: আমেরিকা ২০ বছর পর্যন্ত আফগানিস্তানে ছিল, কিন্তু তাঁদের সরে যাওয়ার পর আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল তালিবানদের দখলে চলে যায়, আর তারপর থেকেই দেশের রাষ্ঠপতি সহ দেশের লোকজন ভিনদেশে যাওয়ায় ব্যস্ত হয়ে পরেছে। কবুল দখল হওয়ার পর থেকে আফগানিস্থান ভীত নড়ে যায়।

আবদুল গনি বরাদর গোটা পৃথিবীর চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।মূলত কয়েক বছর আগেই জেল থেকে ছাড়া পেয়েছে আবদুল গনি বরাদর।আফগানিস্তানে ২০ বছর ধরে জারি যুদ্ধের বিজয়ী হিসেবে উঠে এসেছে। আপাতত সে তালিবানের রাজনৈতিক প্রধান এবং সংগঠনটি প্রধান।

আবদুল গনি বরাদর  ১৯৬৮ সালে উরুজগানে জন্মগ্রহণ করে।১৯৮০-র দশকে প্রথম লড়াই  করে সোভিয়েত সঙ্ঘের বিরুদ্ধে আফগান মুজাহিদ্দিন লড়াই।বরাদর নিজের প্রাক্তন কম্যান্ডার তথা বোনের জামাই মহম্মদ উমরের সঙ্গে কান্দাহারে ১৯৯২ সালে একটি মাদ্রাসা স্থাপন করে। 

২০১০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বরাদরকে পাকিস্তানের করাচী থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।তারপর আমেরিকার চিন্তা ভাবনা  বদলানোর  জন্য প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প আব্দুল গনি বরাদরকে মুক্তি দেওয়ার কথা বলেছিলো।

দ্য গার্ডিয়ানের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, বরাদরকে জয়ের প্রধান রণনীতিকার বলা হয়েছে। বরাদর পাঁচ বছর তালিবানি শাসনে প্রশাসনিক আর সৈন্য ভূমিকা পালন করেছিল। তালিবানের ২০ বছরের নির্বাসনের সময়কালে বরাদর শক্তিশালী সেনা আর মাইক্রো পলিটিক্স কন্ট্রোলার হওয়ার খ্যাতি অর্জন করে।